অক্সিজেনের আকাল, শিল্পক্ষেত্রে সরবরাহ বন্ধের নির্দেশ কেন্দ্রের

ফোর্থ পিলার

দেশে করোনা সংক্রমণ ভয়াবহ আকার নিয়েছে। তার মধ্যেই দেখা দিয়েছে অক্সিজেনের আকাল। চিকিৎসা ক্ষেত্রে অক্সিজেন পাওয়া যাচ্ছে না করোনা আক্রান্ত রোগীদের জন্য। একাধিক রাজ্যে এই ঘটনা দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। অক্সিজেনের জোগানের জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে চিঠি লিখেছে দিল্লি, মহারাষ্ট্র, পঞ্জাব, পশ্চিমবঙ্গ। এবার জরুরি নির্দেশিকা জারি করল কেন্দ্রীয় সরকার।

শিল্পক্ষেত্রে অক্সিজেন সরবরাহ করা এখন হবে না। করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলা করার জন্য অক্সিজেন প্রয়োজন হবে। আগামী ২২ এপ্রিল থেকে এই নির্দেশিকা কার্যকর হবে। এই কথা কেন্দ্রীয় সরকারের থেকে জানানো হয়েছে। ওষুধ শিল্প, তেল, স্টিল, পরমাণু চুল্লি, খাদ্য ও জল শুদ্ধিকরণ, বর্জ্য নিষ্কাশন প্রভৃতি ক্ষেত্রে অক্সিজেন ব্যবহার করা যাবে। সেক্ষেত্রে অক্সিজেন পাঠানো হবে। রাজ্যগুলিকে অক্সিজেন সরবরাহ করার ক্ষেত্রে সম্পূর্ণ সাহায্য করবে কেন্দ্রীয় সরকার।

রেলপথ দিয়ে অক্সিজেন দ্রুত পৌঁছানো হবে। কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল এই বক্তব্য জানিয়েছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছিলেন। পশ্চিমবঙ্গ অক্সিজেনের সংকট দেখা দিয়েছে। অক্সিজেন সরবরাহ করুক কেন্দ্রীয় সরকার। এই বক্তব্য জানানো হয়েছে।
গত পাঁচ দিনে ২ লক্ষ করে প্রতিদিন করোনা আক্রান্ত হয়েছে। তাই পরিস্থিতি ক্রমশ আয়ত্তের বাইরে যাচ্ছে। হাসপাতালগুলিতে রোগীদের চিকিৎসার জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেই। বেশিরভাগ হাসপাতালে বেড নেই। বাড়িতে থেকে চিকিৎসার বন্দোবস্ত করতে বলা হচ্ছে। অক্সিজেন সরবরাহ করা অত্যন্ত প্রয়োজনীয়। কেন্দ্রীয় সরকারের ভূমিকা নিয়েও প্রশ্ন উঠেছে যথেষ্ট। প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি এই বিষয়ে সবরকম সাহায্যের কথা বলেছেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।