অতি গভীর নিম্নচাপে পরিণত হচ্ছে, সাগরদ্বীপ দিয়ে স্থলভাগে আঘাতে সম্ভাবনা

ফোর্থ পিলার

বঙ্গোপসাগরে তৈরি হওয়া নিম্নচাপ আরও শক্তি বাড়িয়েছে। অতি গভীর নিম্নচাপে আগামী ২৪ ঘন্টার মধ্যে সেটি পরিণত হবে। বাংলাদেশের দিকে তার গতিপথ রয়েছে। ফলে পশ্চিমবঙ্গের দক্ষিণবঙ্গের উপর যথেষ্ট প্রভাব পড়বে। একথা জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। সপ্তমীর বিকেলের পর তার প্রভাব স্থলভাগের উপর যথেষ্ট থাকবে। শুক্রবার বিকেলের পরে এই অতি গভীর নিম্নচাপ আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে স্থলভাগের উপর।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, উত্তর-পূর্ব দিকে অগ্রসর হচ্ছে এই নিম্নচাপ। প্রথমে ওড়িশা ও অন্ধ্রপ্রদেশ উপকূলে বরাবর যাওয়ার কথা ছিল তার। বৃহস্পতিবার সকালেই জানা যায়, তার গতিপথ পরিবর্তন হয়েছে। বাংলাদেশের দিকে এই নিম্নচাপ ঘুরেছে। হাওয়া অফিস জানাচ্ছে, পশ্চিমবঙ্গের সাগরদ্বীপ ও বাংলাদেশের সেফুপাড়ার মধ্যে দিয়ে স্থলভাগে ঢুকবে এই অতি গভীর নিম্নচাপটি।

উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, পূর্ব মেদিনীপুর জেলায় যথেষ্ট ভারী বৃষ্টি ও ঝড়ের সম্ভাবনা রয়েছে। উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ঝড়ের প্রকোপ থাকবে যথেষ্ট। ৬০ কিলোমিটার গতিবেগ পর্যন্ত ঘন্টায় ঝড় হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। বৃষ্টির দাপট থাকবে। ষষ্ঠীর মাঝ রাত থেকেই বৃষ্টি শুরু হয়ে যাবে। সপ্তমী, অষ্টমী ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা থাকছে দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে। প্রথমে বলা হয়েছিল বিক্ষিপ্তভাবে গাঙ্গেয় পশ্চিমবঙ্গে বৃষ্টি হবে। এখন জানানো হচ্ছে, গোটা দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। কলকাতা এক্ষেত্রে ছাড় পাচ্ছে না। ভারী বৃষ্টি প্রভাব মহানগরেও পড়বে।

উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে সতর্ক করা হয়েছে। বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের দল পৌঁছে যাচ্ছে এলাকাগুলিতে। সুন্দরবনের সাগরদ্বীপ অঞ্চল আগেও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছিল আমফানের সময়। এবারও সাগরদ্বীপের উপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে ঘূর্ণিঝড়। এই নিম্নচাপটির থেকে যাতে বড় ধরনের ক্ষয়ক্ষতি এড়ানো যায়, সেজন্য আগাম সতর্কবার্তা দেওয়া হচ্ছে। বিভিন্ন জায়গায় জল দাঁড়িয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে অতিবৃষ্টির কারণে।

দিঘা, মন্দারমণি, তাজপুর, শঙ্করপুর অঞ্চলে সমুদ্রে পর্যটকরা যাতে না থাকেন, সেই বার্তা পাঠানো হয়েছে। আগামী তিন দিন সমুদ্রে মাছ ধরতে যাওয়া সম্পূর্ণ নিষেধ। বঙ্গোপসাগর উত্তাল থাকবে। একথা আগে জানানো হয়েছে। উপকূলবর্তী এলাকাগুলিতে ৫০ থেকে ৬০ কিলোমিটার পর্যন্ত ঝোড়ো হাওয়া থাকবে। কলকাতার উপর দিয়ে ৩৫ কিলোমিটারের বেশি বেগে হাওয়া বইতে পারে। ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনাও জারি করা হল।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।