অস্ত্রোপচার মুকুল রায়ের, হাসপাতালে দেখতে গেলেন দিলীপ ঘোষ

ফোর্থ পিলার

বিজেপি নেতা মুকুল রায়কে হাসপাতালে দেখতে গেলেন দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। গলব্লাডারে স্টোন ধরা পড়েছিল মুকুল রায়ের। ল্যাপ্রোস্কপি হয়েছে গতকাল। মুকুল রায় এই মুহূর্তে শারীরিকভাবে সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছেন। তবে আরও কিছুটা সময় তাকে চিকিৎসকদের নজরদারিতে থাকতে হবে। মুকুল রায়কে হাসপাতালে দেখতে গেলেন দিলীপ ঘোষ।

দুজনের মধ্যে বেশ কিছুটা সময় কথাবার্তা হয়। শারীরিক আরোগ্য দ্রুত কামনা করেছেন দিলীপ ঘোষ। রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়েও অল্পবিস্তর কথা হয়েছে বলে খবর। রাজ্য বিজেপির অন্দরে মুকুল রায় ও দিলীপ ঘোষ আড়াআড়ি দুটি লাইন। দুজনের মধ্যেই রাজনৈতিক গত দিক থেকে মতপার্থক্য রয়েছে। ওয়াকিবহাল মহল একথা বরাবর বলে আসছে।

গত তিন বছর ধরে রাজ্য বিজেপিতে মুকুল রায় রয়েছেন। কয়েক মাস আগে তিনি সর্বভারতীয় পদ পেয়েছেন। তার আগে পর্যন্ত কেবল দলের কর্মী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। মুকুল রায়ের সঙ্গে দিলীপ ঘোষের ঠান্ডা লড়াই চলছিল। এই কথা বাইরে প্রকাশিত হয়। দিলীপ ঘোষের কাজকর্মের থেকে মুকুল রায় অন্য ভাবনা চিন্তায় বিশ্বাসী। এ কথা উঠে আসছে। রাজ্য বিজেপিতে কার্যত দুটি ভাগ লক্ষ করা যায়। মুকুল রায়ের নেতৃত্বে তৃণমূল থেকে বহু নেতা-নেত্রী বিজেপিতে যোগদান করেছেন। তৃণমূলের দিকে লোকেদের পাল্লা ভারী হয়ে যাচ্ছে। এই অভিযোগ উঠেছিল।

মুকুল রায়কে নিয়ে আলটপকা মন্তব্য করতে ছাড়েননি দিলীপ ঘোষ। কেবল তাই নয়, প্রকাশ্যেও দুজনের মধ্যে দূরত্বগত অবস্থান দেখতে পাওয়া গিয়েছে। যদিও এই মুহূর্তে রাজ্য বিজেপি জানাচ্ছে দুই নেতার মধ্যে কোনও দূরত্ব নেই। তারা একসঙ্গে রাজ্যে দলের অবস্থান আরও শক্ত করার জন্য কাজ করছেন। দুজনেরই লক্ষ ২০২১ সালে এই রাজ্যে নিজেদের ক্ষমতা প্রতিষ্ঠিত করা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।