আগামী জানুয়ারি পর্যন্ত অবসর নিয়ে প্রশ্ন করতে বারণ করলেন ধোনি

ফোর্থ পিলার

আগামী জানুয়ারি মাস পর্যন্ত অবসর নিয়ে কোনও প্রশ্ন যেন তাকে না করা হয়। একটি অনুষ্ঠানে গিয়ে সমস্ত জল্পনায় জল ঢেলে এমন কথাই জানিয়ে দিলেন মহেন্দ্র সিংহ ধোনি। অর্থাৎ ক্যাপ্টেন কুলের এই মুহূর্তে ক্রিকেট থেকে সরে আসার কোনও ইচ্ছা নেই। বরং আরও নতুন ভাবে নিজেকে মেলে ধরার পরিকল্পনা রয়েছে। এমন ইঙ্গিত দিয়েছেন।

এর আগে ভারতীয় হেড কোচ রবি শাস্ত্রী জানিয়েছিলেন,ধোনি সম্পর্কে কিছু সিদ্ধান্ত নিতে গেলে আগামী আইপিএল পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। অর্থাৎ তিনি মনে করছেন আইপিএলের চূড়ান্ত ফর্ম দেখে ধোনির সম্পর্কে সিদ্ধান্তে আসা উচিত। ভারতীয় দলে ধোনির প্রত্যাবর্তন নিয়ে তার নিজেরও খুব একটা বেশি উত্তাপ নেই। অন্যদিকে নির্বাচকরাও ধোনি সম্পর্কে সঠিক কোনও সিদ্ধান্তে আসতে পারছেন না।

বিশ্বকাপের পর থেকে যে জল্পনা ধোনিকে নিয়ে চলছে তার কিছুটা অবসান হল। এমনটাই মনে করা হচ্ছে। মুম্বইয়ের এক অনুষ্ঠানে এসে মহেন্দ্র সিং ধোনি কিছুটা আবেগতাড়িত হয়েছিলেন টি-টোয়েন্টি ও ৫০ ওভারের বিশ্বকাপ জয়ের ঘটনা সম্পর্কে জানানোর সময়। আগামী আইপিএল ম্যাচ চেন্নাই – এর জার্সি পরে তিনি মাঠে নামবেন একথা পরিষ্কার। ২০২১ সালেও চেন্নাই তাকেই রাখছে দলের অধিনায়ক হিসেবে। এটাও জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি হতে চলেছে ২০২১- এর আইপিএলের নিলাম। চেন্নাইকে ধোনি অনুরোধ করেছেন তাকে ছেড়ে দিতে। কারণ এর ফলে যে পরিমাণ টাকা চেন্নাই ফিরে পাবে। তাতে ধোনির চেন্নাই ফিরে যাওয়ার জায়গা রেখে দিতে পারবে। তবে চেন্নাই কর্তৃপক্ষ এই বিষয়ে কোনও কথা শুনতে রাজি নয়। তারা পরিষ্কার জানিয়ে দিয়েছে ধোনি ২০২১ সাল পর্যন্ত তাদের সঙ্গে খেলছেন। ধোনি অবসর নিলে তাদের দলের সঙ্গেই থাকবেন। চেন্নাই ও ধোনি দুটি নাম সমার্থক।

অর্থাৎ খেলার থেকে মহেন্দ্র সিংহ ধোনি সরে আসছেন না। কার্যত এই কথাটি পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে। পাশাপাশি ফিটনেস ফিরিয়ে আনার জন্য আবার ট্রেনিং শুরু করেছেন, একথাও জানা গিয়েছে। এই মুহূর্তে লন টেনিস খেলার দিকে মন দিয়েছেন তিনি। বিশেষজ্ঞরা জানাচ্ছেন, লন টেনিসের মাধ্যমে যে ফিটনেস ফিরে আসে তা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।