আজ প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করছে না তৃণমূল, বৈঠকে সিদ্ধান্ত

ফোর্থ পিলার

প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করছে না তৃণমূল কংগ্রেস। তৃণমূলের নির্বাচনী কমিটির বৈঠক ছিল কালীঘাটে। সেখানে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। তারপরেই এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। নির্দিষ্ট সময়ে তৃণমূল কংগ্রেস তাদের প্রার্থীর তালিকা প্রকাশ করবে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে কালীঘাটের বাড়ি থেকে এই প্রার্থী তালিকা জানাবেন।

বৈঠক শেষে কালীঘাটের বাড়ি থেকে সৌগত রায়, পার্থ চট্টোপাধ্যায়রা বেরোন। তারা এই কথা জানিয়েছেন। সৌগতবাবু জানান, নির্দিষ্ট সময়ে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে। প্রথম দফার ভোট প্রচারের সময় কিছুটা কম পাওয়া যাবে ঠিকই। কিন্তু বাকি ক্ষেত্রে কোনও সমস্যা হবে না। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে ২৯৪ টি আসনের খসড়া প্রার্থী তালিকা রয়েছে। কাজ প্রায় হয়ে গিয়েছে। দলনেত্রী নিজেই এই তালিকা প্রকাশ করবেন। শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ও একই কথা জানাচ্ছেন। তাড়াহুড়ো করার প্রয়োজন নেই। নির্দিষ্ট সময়ে তৃণমূল কংগ্রেস তালিকা প্রকাশ করবে।

এবারের প্রার্থী তালিকা বেশ কিছু চমক থাকছে বলে মনে করা হচ্ছে। নতুন মুখ থাকবে অনেকে। তরুণ ব্রিগেডকে বরাবর দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পছন্দ করেন। সেই হিসেবে একাধিক তরুণ মুখ থাকছে। সদ্য তৃণমূল জয়েন করা অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ। প্রার্থী হতে পারেন তিনি। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের নেতা তৃণাঙ্কুর ভট্টাচার্য, তৃণমূলের মুখপাত্র দেবাংশু ভট্টাচার্য, পরিচালক রাজ চক্রবর্তী প্রমুখ নাম উঠে আসছে। এছাড়াও আছেন অনেকে।

প্রতিবার তৃণমূল কংগ্রেস আগে আসন তালিকা প্রকাশ করে। এবার নির্বাচন কমিশন ভোটের দিন ঘোষণা করে দিয়েছে। তারপরেও মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেননি। এই নিয়ে দলের অন্দরে চর্চা চলছে। কোনওরকম সমস্যা যাতে না থাকে, সেজন্যই এই ধীরে চলো নীতি নেওয়া হয়েছে। দলের পক্ষ থেকে নেতারা এ কথা জানাচ্ছেন।

এই বিষয় নিয়ে কটাক্ষ করেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের সময় তৃণমূল আগে প্রার্থী তালিকা ঘোষণা করেছিল। তারপরেও মাত্র ২০ টি আসন পেয়েছিল তৃণমূল। কাজেই আগে প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করে কোনও লাভ পাওয়া যায় না। এ কথা দাবি করেছেন দিলীপবাবু।

রাজনৈতিক মহল বলছে তৃণমূল কংগ্রেস অন্যান্য দলের সঙ্গে জোটের প্রক্রিয়ায় যাচ্ছে। আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব কলকাতায় রয়েছেন। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে আজ তার বৈঠক হবে। আরজেডি এবার তৃণমূলের সঙ্গে ভোটে লড়তে চায়। সেই নিয়ে কথাবার্তা চলছে। তিন থেকে চারটি আসন চেয়েছে আরজেডি। সেই সব বিষয় নিয়ে চূড়ান্ত আলোচনা জন্য তৃণমূল দেরি করছে তালিকা প্রকাশে।

শরদ পাওয়ারের এনসিপি দল এবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে সমর্থন করছে। তাদের নেতারাও এবার যৌথভাবে তৃণমূল কংগ্রেসকে ভোটে সাহায্য করবেন। একথা জানা যাচ্ছে। আজ সোমবার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করতেন। এ কথা শোনা গিয়েছিল। শেষপর্যন্ত সেই সিদ্ধান্ত থেকে সরে এল তৃণমূল কংগ্রেস।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।