আরও এক গর্ভবতী হাতির মৃত্যু, সন্দেহ বিষ মেশানো জল পান

ফোর্থ পিলার

কেরালার পর এবার ছত্তিশগড়। গর্ভবতী হাতি মারা গেল। সন্দেহ বিষ মেশানো জল খেয়ে ওই হাতি মারা গিয়েছে। ওই এলাকায় আরও একটি হাতির মারা যাওয়ার খবর এসেছে গতকাল। ছত্তিশগড়ের সুরাজপুর ফরেস্ট ডিভিশন প্রতাপপুর রেঞ্জে এই ঘটনা ঘটেছে। তদন্ত শুরু করেছে বন দফতর।

বন দফতরের তথ্য থেকে জানা গিয়েছে, দুদিনে দুটি হাতি মারা গিয়েছে। গর্ভবতী হাতিটি মারা গিয়েছে মঙ্গলবার। কাল অর্থাৎ বুধবার মারা যায় অন্য একটি হাতি। সন্দেহ হয়েছে বিষক্রিয়ার কারণেই সম্ভবত তারা মারা গিয়েছে। বনের আধিকারিকরা তদন্ত শুরু করেছেন। ওই এলাকায় একটিমাত্র পুকুর রয়েছে। সন্দেহ সেখানে কেউ বা কারা জলের মধ্যে বিষ মিশিয়ে দিয়েছে। সেই জল খাবার কারণে বিষক্রিয়া হয় হাতি দুটির।

পরপর দু’দিন দুটি হাতি মারা যায়। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এলে সম্পূর্ণ তথ্য পাওয়া যাবে। কে বা কারা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িত তা তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। ইচ্ছাকৃতভাবেই পুকুরে বিষ মেশানো হয়েছিল। এমনটাই প্রাথমিক তদন্তে অনুমান। বন্যপ্রাণ আইন আরও কড়া হোক। এই দাবি উঠেছে বিভিন্ন মহল থেকে। পশুপ্রেমী সংগঠনগুলি আরও বেশি করে আন্দোলনে যাবার কথা জানাচ্ছে। এর মধ্যেই ফের আরও দুটি হাতির মৃত্যুর খবর এল।

কেরালায় বিস্ফোরক ও বাজি ভর্তি আনারস খেয়ে গর্ভবতী হাতি মারা যায়। তার মৃত্যু গোটা দেশকে নাড়িয়ে দিয়েছে। মানুষের এহেন ব্যবহার নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে শিক্ষিত মহলে। ফের কেরলেই একটি কুকুরের মুখে সেলোটেপ লাগিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। জল ও খাবার পায়নি দীর্ঘদিন। সেই ঘটনা গতকাল সামনে এসেছে। এরপর ছত্তিশগড়ের দুটি হাতির মৃত্যু।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।