এইমস থেকে ছাড়া পেলেন অমিত শাহ, সোমবার থেকে যোগ দেবেন সংসদে

ফোর্থ পিলার

হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ রয়েছে। আগামী সোমবার থেকে তিনি সংসদে বাদল অধিবেশনে যোগ দেবেন বলে আপাতত জানা যাচ্ছ। করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছিলেন অমিত শাহ। সুস্থ হওয়ার পরেও তিনি আরও দুবার হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন। তাহলে কি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে ওঠেননি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী? প্রশ্ন উঠেছিল।

অতিসম্প্রতি অমিত শাহ ফের দিল্লির এইমস হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য ভর্তি হন। ঘটনায় যথেষ্ট উদ্বিগ্ন হয়েছিল ওয়াকিবহাল মহল। এইমস থেকে জানানো হয়েছিল, শারীরিক পরীক্ষার কারণে অমিত শাহ ভর্তি হয়েছেন। সংসদের অধিবেশন শুরু হচ্ছে। তার আগেই তিনি শরীরের সম্পূর্ণ চেকআপ করানোর জন্য হাসপাতালে রয়েছেন। অধিবেশন শুরু হলেও হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন অমিত শাহ। আজ বৃহস্পতিবার তাকে হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হল। আগামী সোমবার থেকে তিনি সংসদে কাজে যোগ দেবেন বলে জানা যাচ্ছে।

সংসদের দুই কক্ষে মোট ৭৮৫ জন সদস্য রয়েছেন। তাদের মধ্যে ২০০ জনের বয়স ৬৫-র ওপরে। সাতজন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী এবং দু’ডজন এমপি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। অমিত শাহর বয়স ৫৫ বছর। তার ডায়াবেটিস সহ একাধিক রোগ রয়েছে শরীরে। করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হওয়ার পরেই সে কারণে দুঃশ্চিন্তা ছড়িয়েছিল। শুধু তাই নয় আগস্ট মাসে তিনি প্রথমবার হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান সুস্থ হয়ে। কয়েকদিনের মধ্যেই ফের শ্বাসকষ্ট শুরু হয়েছিল অমিত শাহের। দিল্লির এইমস হাসপাতাল তারপর চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি। সেখান থেকে ফেরার পরেও ফের হাসপাতালে যান তিনি।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, আগামী বছর গোড়ার দিকে দেশে করোনা ভাইরাস টিকা আসছে। দেশের মানুষকে টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে বেশ কিছুটা সময় লাগবে। এই মুহূর্তে সর্বাধিক সংক্রমণ চলছে ভারতবর্ষে। বৃহস্পতিবার সকালে বুলেটিন প্রকাশ করেছিল কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। ৯৭ হাজার আক্রান্ত একদিনে। ৫০ লক্ষ পেরিয়ে গিয়েছে দেশের মোট আক্রান্তের সংখ্যা।

কোথায় গিয়ে ভারতবর্ষের সংক্রমণের সংখ্যা দাঁড়াবে? সে বিষয়ে যথেষ্ট দুশ্চিন্তা রয়েছে। কেন্দ্রীয় সরকার বরাবর দাবি করছে ভারতের করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি উদ্বেগজনক নয়। মৃত্যুর হার সর্বনিম্ন করাই অন্যতম উদ্দেশ্য। সুস্থ হওয়ার হার বাড়ছে প্রতি সপ্তাহে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।