“করোনাও তো মানুষের মতো জীব, বেঁচে থাকার অধিকার আছে”, বিতর্কে বিজেপির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী

ফোর্থ পিলার

করোনা গোটা দেশে এক ভয়ানক পরিস্থিতি তৈরি করেছে। বিজেপি নেতারা তাদের মন্তব্য থেকে সরে আসছেন না। করোনা বিষয় নিয়ে বেফাঁস মন্তব্য চলছেই দেশীয় রাজনীতিতে। সেই তালিকায় এবার নাম লিখিয়েছেন উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ত্রিবেন্দ সিং রাওয়াত। করোনাকে মানুষের সঙ্গে তুলনা করেছেন তিনি। করোনাও বাঁচার অধিকার আছে। একথাও বলতে শোনা গিয়েছে তাকে।

এই বক্তব্য এখন অন্যতম বিতর্কিত হিসেবে পরিচিত রয়েছে। করোনা থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য বহু বিজেপি নেতা, সাংসদ, মন্ত্রী একাধিক দাওয়াই দিয়েছেন। কিন্তু মনুষ্য জাতির সঙ্গে করোনাকে তুলনা করা এবং করোনার বাঁচার অধিকার রয়েছে। একথা বলা এই প্রথম শোনা গেল বিশ্ব দরবারে। নেটিজেনদের মধ্যে এই নিয়ে প্রবল আলোচনা চলছে। তার বক্তব্য থেকে সরে আসেননি তিনি। তবে কিছুটা ঢোক গিলেছেন পরে। করোনা থেকে মানুষকে উদ্ধার করতে হবে। মনুষ্য জীবনকে বাঁচানোর জন্য করোনাকে শেষ করতে হবে। একথা জানিয়েছেন তিনি।

ত্রিবেন্দ্র সিং রাওয়াত বলেন, “করোনাও তো মানুষের মতো জীব। ওদেরও বেঁচে থাকার অধিকার আছে।” এই নিয়েই শুরু হয়েছে জোর বিতর্ক। একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলের সাক্ষাৎকারে এই কথা বলেছেন তিনি। তারপরেই শুরু হয়েছে জোর বিতর্ক। উত্তরাখণ্ডের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী সাক্ষাৎকারে বলেন, “দার্শনিক দৃষ্টিভঙ্গি থেকে যদি দেখা যায়, তাহলে বলতে হবে করোনা ভাইরাসও আমাদের মতোই জীবন্ত। তাদেরও আমাদের মতো বেঁচে থাকার অধিকার রয়েছে। তবে আমরা মানুষরা তো নিজেদের সবচেয়ে বুদ্ধিমান বলে মনে করি। সেই কারণে এদের নির্মূল করতে চাইছি। তাই করোনা ভাইরাসও নিজেকে ক্রমাগত পরিবর্তন করে চলেছে।”

এর কিছুদিন আগেই মধ্যপ্রদেশের বিজেপির মন্ত্রী ঊষা ঠাকুর করোনা রুখতে বার্তা দিয়েছিলেন। তিনি ‘যজ্ঞ চিকিৎসা’ করতে পরামর্শ দেন। জানিয়েছেন, চারদিন পরপর এই যজ্ঞ করলে করোনা থাকবে না আর৷ এই নিয়েও চরম বিতর্ক তৈরি হয়। এছাড়াও গোমূত্র পানের বিষয় মাঝেমধ্যেই শোনা যাচ্ছে। বিজেপির প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী পরে জানিয়েছেন, মানুষকে বাঁচাতে হলে করোনাকে শেষ করতে হবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।