কাল থেকে পাঁচ দিন রাজ্যে ভারী বৃষ্টি, দুর্যোগ

ফোর্থ পিলার

আগামী পাঁচ দিন রাজ্যে আবহাওয়ার বড়সড় বদল হতে পারে। কাল থেকে ভারী বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা থাকছে দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে। বিভিন্ন জেলায় চলবে বৃষ্টি। এছাড়াও ভরা কোটাল আসছে। তার জেরে জলস্ফীতি হবে। ঘূর্ণিঝড় বিধ্বস্ত বিস্তীর্ণ এলাকা আবারও বানভাসি হওয়ার বড়সড় আশঙ্কা থাকছে। আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, আগামী কাল বৃহস্পতিবার থেকে বৃষ্টি শুরু হবে রাজ্যে।

সোমবার পর্যন্ত ভারী বৃষ্টি চলবে। নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে বঙ্গোপসাগরে। তার জেরেই এই বৃষ্টি। এই বৃষ্টির মধ্যে দিয়েই রাজ্যের দক্ষিণবঙ্গের বর্ষা ঢুকে যাবে। উত্তরবঙ্গে বর্ষা এসে গিয়েছে আগেই। এই বৃষ্টির কথা মাথায় রেখে আগেভাগে কাজ শুরু করে দিয়েছে প্রশাসন। প্রত্যেকটি জেলাকে অ্যালার্ট করা হয়েছে। বৃষ্টি ও জলস্ফীতি মোকাবিলার জন্য কাজ চলছে। কলকাতাতেও জম জমার প্রচুর সম্ভাবনা থাকছে। টানা পাঁচদিন বৃষ্টি হলে জল জমার আশঙ্কা অনেকটাই বেড়ে যাবে। শুক্রবার ভরা কোটাল রয়েছে তার উপর। তাই গঙ্গা স্বাভাবিকের থেকে যথেষ্ট উপর দিয়ে বইবে।

আলিপুর আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, দক্ষিণবঙ্গের উপর ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা অনেক আগে থেকেই তৈরি হয়েছে। গত তিনদিন ধরে ঝড়বৃষ্টি দেখতে পাওয়া যাচ্ছে। প্রাকবর্ষার বৃষ্টি হিসেবে এগুলিকে ধরা যেতে পারে। সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ভরা কোটাল। নবান্ন রাজ্যের সব জেলাতেই এই বিষয়ে সতর্ক করেছে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় পরিস্থিতি নিয়ে দুশ্চিন্তায় রয়েছেন। পূর্ব মেদিনীপুর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার বিস্তীর্ণ অঞ্চল জলের তলায় রয়েছে। কাজেই তার ওপর ফের জলস্ফীতি হলে পরিস্থিতি যথেষ্ট ভয়াবহ হবে।

মঙ্গলবার রাত থেকে হাল্কা ও মাঝারি বৃষ্টি হয় দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জায়গায়। বুধবার সকাল থেকেই আকাশে মেঘ রয়েছে। সূর্যের তেজও তেমন দেখা যাচ্ছে অন্যান্য দিনের মতো। ঝড়বৃষ্টির সম্ভাবনা জারি থাকছে। আপেক্ষিক আদ্রতা কমেছে কিছুটা। তাই অস্বস্তিসূচকও কমেছে অন্যান্য দিনের থেকে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।