চলতি বছরের শেষে ভারতে শীর্ষে পৌঁছবে করোনার সংক্রমণ

ফোর্থ পিলার

চলতি বছরের শেষে ভারতে শীর্ষে পৌঁছবে করোনার সংক্রমণ। আর অর্ধেকের বেশি ভারতীয় করোনায় আক্রান্ত হতে পারেন বলে জানিয়েছে দেশটির ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব মেন্টাল হেলথ অ্যান্ড নিউরোসায়েন্সেস (নিমহ্যান্স)। নিমহ্যান্সের চিকিৎসকরা বলছেন, আক্রান্তদের মধ্যে ৯০ শতাংশই সংক্রমণ বুঝতে পারবে না আর ৫ শতাংশের অবস্থা গুরুতর হবে। তাদেরই হাসপাতালে ভর্তি করতে হবে।

ভারতের তাবৎ বিজ্ঞানী ও চিকিৎসকদের আলোচনা বা বিতর্কের বিষয় একটিই, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ কবে শীর্ষে পৌঁছাবে। বিজ্ঞানীদের একাংশের ধারণা, জুলাইয়ের শুরুতেই ভারতে করোনা সংক্রমণ শীর্ষে পৌঁছাবে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন, জুলাইয়ের শেষ থেকেই ভারতে করোনা সংক্রমণের হার কমতে থাকবে।

এমন অবস্থায় সবকিছু বিশ্লেষণ করে নিমহ্যান্সের চিকিৎসকরা বলছেন, চতুর্থ পর্যায়ের লকডাউন উঠে গেলেই ভারতে করোনা সংক্রমণ পুনরায় বাড়বে। সেইসঙ্গে গোষ্ঠী সংক্রমণের পর্যায়ে পৌঁছে যাবে।

নিমহ্যান্সের ধারণা, ২০২০ সালের ডিসেম্বরের মধ্যে ভারতের মোট জনসংখ্যার অর্ধেক করোনায় আক্রান্ত হবে। বছর শেষে প্রাণঘাতী ভাইরাসে ৬৭ কোটি ভারতীয় করোনা রোগের শিকার হবেন। অন্যদিকে আন্তর্জাতিক রেটিং এজেন্সি স্ট্যান্ডার্ড অ্যান্ড পুওরের মতে, সেপ্টেম্বরের আগে ভারতে করোনা সংক্রমণ শীর্ষে পৌঁছবে না।

আজ শনিবার পর্যন্ত ভারতে করোনা ভাইরাসে চার হাজার ৯৮০ জনের মৃত্যু হয়েছে। মোট আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৭৩ হাজার ৭৬৩ জন। এদের মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৮২ হাজার ৬২৭ জন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।