চিতাবাঘের দুটি চামড়া উদ্ধার, কুঁদঘাট থেকে গ্রেফতার ২

ফোর্থ পিলার

খাস কলকাতায় উদ্ধার হল চিতাবাঘের দুটি চামড়া। ক্রেতা সেজে অভিযান চালিয়েছিলেন আধিকারিকরা। কুঁদঘাট থেকে এই চামড়া উদ্ধার করা হল। ঘটনায় দু’জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এই চক্রের আর কারা জড়িত জানার চেষ্টা চলছে দ্রুত। দুজনকে সল্টলেকের বন দফতরের অফিসে নিয়ে গিয়ে জেরা করা হচ্ছে বলে খবর। এই দুই ব্যক্তি চামড়া দুটি বিক্রির জন্য ক্রেতা খুঁজছিল।

মঙ্গলবার সকালে ক্রেতা সেজে হানা দেয় আধিকারিকরা। ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল ব্যুরো ও ওয়াইল্ড লাইফ ক্রাইম কন্ট্রোল হেলথ যৌথভাবে এদিন এই অভিযান চালিয়েছে। খবর এসেছিল, কলকাতায় দুটি চিতাবাঘের চামড়া নিয়ে আসা হয়েছে। ক্রেতা খোঁজা হচ্ছে বিক্রির জন্য। এরপরেই আধিকারিকরা তাদের ফোন করে। আলাপ-আলোচনা হয় দুইপক্ষে। ১০ লক্ষ টাকায় দুটি চামড়া কেনা হবে। এই কথা ঠিক হয়েছিল।

ওই দুই ব্যক্তি টালীগঞ্জ থেকে কুঁদঘাটের মধ্যে একটি জায়গায় আসতে বলে। সেই মতো পরিকল্পনা করা হয়। জাল বিছানা হয়েছিল এলাকায়। মোটরবাইকে করে দুজন আসে চামড়া বিক্রির জন্য। দুই আধিকারিক ক্রেতা সেজে অপেক্ষা করছিল। এরপর ব্যাগ থেকে চামড়া বের করে তারা দেখাতে যায়। আর অপেক্ষা করার প্রয়োজন ছিল না। তাদেরকে সঙ্গে সঙ্গে পাকড়াও করা হয়। চারদিক থেকে ওই দুই ব্যক্তিকে ঘিরে ফেলা হয়েছিল। দুই ব্যক্তি পেশায় গাড়িচালক বলে জানা গিয়েছে।

তাদের সল্টলেকে বন দফতরের অফিসে নিয়ে আসা হয়। কোথা থেকে এই চামড়া এল? জানার চেষ্টা চলছে। চক্রের সঙ্গে আর কারা যুক্ত? কলকাতায় আর কোনও পাচারকারী এই মুহূর্তে রয়েছে কিনা! তার সন্ধান চলছে। এটি একটি বড় সাফল্য বলে বন দফতরের তরফ থেকে জানানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।