চিন ও নেপাল মাপলো, বেড়েছে এভারেস্টের উচ্চতা

ফোর্থ পিলার

মাউন্ট এভারেস্টের উচ্চতা কত? নেপাল আর চিনের মধ্যে এই নিয়ে টানাপোড়েন ছিল। এবার সব তর্কের অবসান। দুই দেশ একত্রে বিশ্বের সব থেকে উঁচু শৃঙ্গর উচ্চআ প্রকাশ করেছে। গোটা বিশ্ব এখন থেকে এই উচ্চতাই জানবে। সামান্য উচ্চতা বেড়েছে মাউন্ট এভারেস্টের। বেশ কয়েক বছর আগে এশিয়া মহাদেশ এক প্রলয়ঙ্কারী ভূমিকম্পর কবলে পড়েছিল। তারপরই বিভিন্ন মহলে মাউন্ট এভারেস্টের উচ্চতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। বলা হচ্ছিল এভারেস্টের উচ্চতা কমেছে সেই প্রলয়ের পরে। এবার সেই দ্বন্দ্বের অবসান হল।

মাউন্ট এভারেস্টের উচ্চতা ৮৮৪৮ মিটার। এই উচ্চতাই স্বীকৃতি দিয়েছিল নেপাল। সার্ভে অফ ইন্ডিয়া জরিপ করেছিল এই শৃঙ্গর। এই উচ্চতা জানা গিয়েছিল। এই উচ্চতার সঙ্গে একমত হয়নি চিন। দুই দেশের সীমান্তে এই পর্বত রয়েছে। দুই দেশ থেকেই ওঠা যায় এভারেস্টে। চিনের গবেষকরা উচ্চতার হিসেব দিয়েছিলেন। তাদের অনুযায়ী উচ্চতা ছিল ৮৮৪৪ মিটার। এবার সেই মতাভেদ কেটেছে। এই মুহূর্তে মাউন্ট এভারেস্টের উচ্চতা ৮৮৪৮.৬ মিটার বা ২৯০৩.৬৯ ফিট।

চিনের রাষ্ট্রপতি শি জিনপিং ও নেপালের রাষ্ট্রপতি বিদ্যা দেবী ভান্ডারি যৌথ ঘোষণা করেছেন এই উচ্চতা। এর মাধ্যমে অবশেষে বিশ্বের সব থেকে উঁচু পর্বতের উচ্চতা প্রকাশিত হল। সহমত হল নেপাল ও চিন। শি জিনপিং চিঠিতে জানিয়েছেন, দুই দেশ যৌথভাবে ঘোষণা করছে। মাউন্ট এভারেস্টের উচ্চতা ৮৮৪৮.৬ মিটার। এটি চিন-নেপাল বন্ধুত্বের চূড়ো বলেও জানিয়েছেন শি জিনপিং। চিনের বর্ডার অ্যান্ড রোড প্রকল্পে দুই দেশই দ্রুত রাস্তা তৈরি করছে। একথাও জানিয়েছেন চিনের প্রেসিডেন্ট। একই সুরে দুই নেপালের রাষ্ট্রপতিও বক্তব্য রেখেছেন।
দুই দেশের সম্পর্কে নিয়ে প্রশংসা করেছেন তিনি।

প্রথমে নেপালের সমীক্ষকরা পাহাড়ের ওপর উঠেছিলেন। ২০১৯ সালের মে মাসে কাজ শুরু হয়েছিল। এর ঠিক একবছর বাদে চিনের বিশেষজ্ঞরা পাহাড়ে পৌঁছান উচ্চতা মাপতে। সেই কাজ শেষ হয়। দুই দেশই নিজেদের পর্যবেক্ষণকে সম্মান দিয়েছে। ২০১৫ সালে প্রলয়ঙ্কারী ভূমিকম্প হয়েছিল। ভারত, নেপাল খুবই ক্ষতিগ্রস্ত হয় সেই ভূমিকম্পতে। এশিয়া মহাদেশের আরও কিছু দেশেও সেই কম্পন অনুভূত হয়। অনেকে মনে করেছিলেন এভারেস্টের উচ্চতা হয়তো কমে গিয়েছে। সেই সন্দেহ দূর করার জন্যই উচ্চতা মাপার সিদ্ধান্ত নেয় নেপাল। চিনও সেই কাজ করে।

মাউন্ট এভারেস্ট নবীন ভঙ্গিল পর্বতমালা। এখনও পাত সরছে। তাই উচ্চতার তারতম্য হবে। একথা মেনেছিলেন বিজ্ঞানীরা। এভারেস্টের উচ্চতা বাড়ছে। এই কথা মানেন বিজ্ঞানীরা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।