ছয় বছর বোর্ড প্রেসিডেন্ট থাকুক সৌরভ, বিসিসিআইয়ের সম্মতি

ফোর্থ পিলার

বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হিসেবে ছয় বছরের জন্য সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে রেখে দেওয়ার সম্মতি মিলেছে। রবিবার বোর্ডের সাধারণ সভায় সকলে এই কথায় সম্মতি জানিয়েছেন। সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে ছয় বছরের জন্য এই পদে রাখা জরুরি এমনটাই সিদ্ধান্ত হয়েছে। এরপর সুপ্রিম কোর্টের ওপর সবকিছু নির্ভর করবে। সুপ্রিম কোর্ট যে বক্তব্য রাখবে তাই মেনে নেবেন ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ড।

আজ বোর্ডের ৮৮ তম সাধারণসভা ছিল। শুধু তাই নয়, এ দিন বোর্ডের ‘কুলিং অফ’ নিয়মের নতুন ভাবনা তৈরি হওয়া উচিত বলে মনে করা হয়েছে। লোধা কমিশনের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী কোনও পদাধিকারী একাধিক পদে একসঙ্গে থাকতে পারবেন না। যদি সময় পেরিয়ে যায় তাহলে তাকে সেই চেয়ার ছেড়ে দিতে হবে। এই হিসেবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের হাতে আর সময় আছে মাত্র নয় মাস। কারণ অক্টোবর মাসের তৃতীয় সপ্তাহে বোর্ড প্রেসিডেন্ট হয়েছেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

এর আগে দীর্ঘ ৩৩ মাস তিনি সিএবির দায়িত্বে ছিলেন। তাই তার সময় উত্তীর্ণ হয়ে গেলে তিনি আর বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট পদে থাকতে পারবেন না। এই বিষয়টি এবার পরিবর্তন করতে চাইছে বিসিসিআই। সুপ্রিম কোর্টে এই বিষয়ে আবেদন জানানো হবে। সুপ্রিম কোর্ট অনুমোদিত বোর্ডের বর্তমান সংবিধান অনুযায়ী ভারতীয় ক্রিকেট প্রশাসনের কোনও পদাধিকারী বোর্ড বা রাজ্য সংস্থায় তিন বছরে দুটি মেয়াদ কাটালে তারপর তাকে তিন বছরের জন্য ‘কুলিং অফ’ – এ যেতে হবে।

এক্ষেত্রে বোর্ড চাইছে একেকটি চেয়ারের জন্য ছয় বছর করে সময় নির্ধারিত হোক। তাহলে দক্ষ প্রশাসকরা আরও ভালো কাজ করার জন্য অনেকটা সময় পাবেন। বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হিসেবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় যে যোগ্য মানুষ তা বলার অপেক্ষা রাখে না। সমস্ত ক্রিকেটমহল এই সিদ্ধান্তকে অনুমোদন করেছে। দক্ষ প্রশাসক হিসেবে এবং ক্রিকেটার হিসেবে তিনি যে সঠিক সিদ্ধান্ত নেবেন এমনটাই এখন অবধি অনুমান। সেক্ষেত্রে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের কাজের মেয়াদ ছয় বছর করা হোক এমনটাই দাবি উঠেছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।