জার্মানি করোনার ভ্যাকসিন প্রয়োগ করবে মানব শরীরে

ফোর্থ পিলার

জার্মানির বায়োটেক সংস্থা বায়োএনটেক কর্তৃক উদ্ভাবিত করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে সম্ভাব্য ভ্যাকসিন সরাসরি মানব শরীরে পরীক্ষার অনুমোদন দিয়েছে জার্মানির ভ্যাকসিনেস রেগুলেটর। বুধবার এক বিবৃতিতে এই তথ্য জানিয়েছে নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

সারা বিশ্বে করোনা মহামারিতে আক্রান্ত মানুষদের বাঁচাতে এই প্রতিষেধকটি তৈরি করা হয়েছে। ট্রায়ালটিতে প্রথম পর্যায়ে ১৮ থেকে ৫৫ বছর বয়সী ২০০ জন স্বাস্থ্যবান মানুষের শরীরে ভ্যাকসিন প্রয়োগ করা হবে। দ্বিতীয় পর্যায়ে ভ্যাকসিনটি কভিড-১৯ রোগে আক্রান্ত কয়েকজনের ওপর প্রয়োগ করা হবে।

বায়োএনটেক জানিয়েছে, স্বেচ্ছাসেবীদের শরীরে যে ভ্যাকসিনটি প্রয়োগ করা হবে সেটি বিএনএটি ১৬২ নামে পরিচিত। ফার্মা জায়ান্ট পিফাইজারের সাথে যৌথভাবে এটি তৈরি করা হয়েছে।

করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন আবিষ্কারে নিরলস শ্রম দিয়ে যাচ্ছেন সারা বিশ্বের ভাইরাস নিয়ে কাজ করা বিজ্ঞানীরা। এই মুহূর্তে বিশ্বের ৮০টিরও বেশি গবেষক দল কাজ করছেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।