টাইমস ম্যাগাজিনে ১০০ জনের প্রভাবশালীদের তালিকায় শাহিনবাগের ‘দাদি’

ফোর্থ পিলার

টাইমস মাগাজিনে একশো জন প্রভাবশালীর নাম প্রকাশিত হয়েছে। ২০২০ সালের এই প্রভাবশালীদের মধ্যে রয়েছেন শাহীনবাগ – এর ‘দাদি’। সিএএ আন্দোলনের অন্যতম মুখ হয়ে উঠেছিলেন দাদি বিলকিস। তাকেই এবার দেখা গেল টাইমস ম্যাগাজিনের প্রচারে। ভারত থেকে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও অভিনেতা আয়ুষ্মান খুরানা প্রভাবশালীদের তালিকায় জায়গা পেয়েছেন। তবে দাদির বিশ্ব সমাদরে জায়গা পাওয়া এক গুরুত্বপূর্ণ ঘটনা। এমনই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

চলতি বছর ভারতবর্ষ উত্তাল হয়ে উঠেছিল নাগরিক বিল নিয়ে। সিএএ বিরোধী প্রচার কার্যত এক অন্য মাত্রা প্রায়। দিল্লির শাহীনবাগে শুরু হয় গণঅবস্থান আন্দোলন। কনকনে ঠান্ডার রাত সাধারণ মানুষ কেন্দ্রীয় সরকারের বিপক্ষে থেকে অবস্থানে শামিল হন। নারী-পুরুষ-শিশু সকলেই উপস্থিত হয়েছিলেন সেই বিক্ষোভ আন্দোলনে। নজর গিয়েছিল এক অশীতিপর বৃদ্ধার দিকে। বিলকিস ৮২ বছর বয়সে সেই আন্দোলনে সামিল হয়েছিলেন। ভারতবর্ষে শুধু নয় আন্তর্জাতিক দুনিয়াতে তার ছবি সম্প্রচারিত হয়। কনকনে শীতের রাতেও তিনি একইভাবে অবস্থান করেছেন অন্যান্যদের সঙ্গে। বলা ভালো তিনি ছিলেন সকলের সামনে সারিতে।

স্লোগান দিয়েছেন। বিলের বিরোধিতা করেছেন। আন্দোলন থেকে একচুল তাকে টলানো যায়নি। তিনি হয়ে উঠেছিলেন সকলের ‘দাদি’। ভারতবর্ষের গণমাধ্যমে দাদি বিলকিস হয়ে উঠেছিলেন ভাইরাল। করোনা আবহে শেষপর্যন্ত শাহীনবাগ আন্দোলন স্তিমিত হয়ে যায়। তুলে নেওয়া হয় অবস্থান-বিক্ষোভ। কিন্তু প্রচারের আলোয় দাদি থেকে গিয়েছেন। সে কারণেই চলতি বছরের টাইমস ম্যাগাজিনে তিনি হয়ে উঠেছেন অন্যতম মুখ। সমগ্র বিশ্বের প্রভাবশালীদের তালিকায় দাদি এবার অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি অনেক আগেই এই তালিকায় ছিলেন। এছাড়াও আছেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের বর্তমান প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। তার বর্তমান নির্বাচনের প্রতিপক্ষ জো বাইডেনও রয়েছেন এই তালিকায়। গোটা বিশ্বের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিরাই এবার এই তালিকায় রয়েছেন। ভারতবর্ষের বর্তমান প্রজন্মের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেতা আয়ুষ্মান খুরানা এবার এই তালিকায় অন্তর্ভুক্ত হয়েছেন।

ভারতীয় বংশোদ্ভূত হিসেবে বিশ্বের প্রভাবশালীদের তালিকায় আছেন কেমব্রিজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্লিনিকাল মাইক্রোবায়োলজির অধ্যাপক রবীন্দ্র গুপ্ত। আছেন গুগলের পেরেন্ট সংস্থা আলফাবেটের সিইও সুন্দর পিচাই। ‘পাওনিয়ার’ বিভাগে জায়গা করে নিয়েছেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত চিকিৎসক গুপ্ত। তিনি লন্ডনের এক এডস রোগীকে পুরোপুরি সুস্থ করে তুলেছিলেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।