ট্রাম্পের ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম বন্ধ অনির্দিষ্টকালের জন্য

ফোর্থ পিলার

অনির্দিষ্টকালের জন্য ডোনাল্ড ট্রাম্পের ফেসবুক ও ইনস্টাগ্রাম একাউন্ট বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। ফেসবুকের কর্ণধার মার্ক জুকারবার্গ নিজেই কথা জানিয়েছেন। এছাড়াও ১২ ঘন্টার জন্য টুইটারের একাউন্ট বন্ধ করে রাখা হয়েছিল ডোনাল্ড ট্রাম্পের। হিংসা ছড়ানোর ভাষণ দিয়েছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। শুধু তাই নয়, নিজের সমর্থকদের প্ররোচনা দিতে একাধিক পোস্ট করেছেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

তার জেরে এই আমেরিকায় ক্যাপিটাল ভবনে আক্রমণ দেখা গেল। চার জন সাধারণ মানুষ মারা গেলেন। পৃথিবীর সব থেকে পুরনো গণতন্ত্রে লাগল কালির দাগ। গোটা বিশ্বের কাছে মুখ পুড়ল আমেরিকার ডোনাল্ড ট্রাম্পকে কার্যত এবার হুঁশিয়ারি দেওয়া হয়েছে। তিনি বরাবর বিরূপ মন্তব্য ও কল্পনাপ্রসূত মতামত সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে করে আসতেন। এই অভিযোগ দীর্ঘদিনের। সর্বশেষ কার্যক্রম আমেরিকার গণতন্ত্রে আঘাত করেছে। সেখান থেকেই এত বড় ঘটনা।

একের পর এক টুইট করেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। আরও বেশি বিদ্বেষমূলক আচরণ ছড়িয়ে পড়েছিল রিপাবলিকানদের একাংশের মধ্যে। যেভাবে সিনেটে ঢুকে আক্রমণ হয়েছে, তা চরম নিন্দনীয়। মার্ক জুকারবার্গ জানিয়েছেন, প্রেসিডেন্ট তাদের সোসাল প্লাটফর্ম ব্যবহার করে যা করেছেন অচিরেই তাতে বড় সমস্যা হতে পারে। তাই তাদের এই সিদ্ধান্ত। ডোনাল্ড ট্রাম্পের টুইটগুলি মুছে দেওয়া হয়েছিল। বিবৃতি জারি করা হয় এই বিষয়ে।

ওয়াশিংটন ডিসিতে নজিরবিহীন হামলার কথা মাথায় রেখেই ট্রাম্পের টুইটগুলি মোছা হয়েছে প্ররোচনামূলক টুইট করেছিলেন ট্রাম্প। এই কাজ সিভিক ইন্টিগ্রিটি পলিসি বিরোধী বলে জানানো হয়েছে। এমন কাজ পরবর্তী সময় করলে ডোনাল্ড ট্রাম্পের একাউন্ট বরাবরের জন্য নিষিদ্ধ হতে পারে বলে জানানো হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।