ডোনাল্ড ট্রাম্প সম্পূর্ণ করোনামুক্ত, জানালো হোয়াইট হাউস

ফোর্থ পিলার

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সম্পূর্ণ করোনা ভাইরাস মুক্ত। তার শরীরে মহামারীর লেশমাত্র নেই। প্রেসিডেন্টের চিকিৎসক মিন কনলে এই কথা জানিয়েছেন। হোয়াইট হাউসের পক্ষ থেকে এই বার্তা প্রকাশ করা হয়েছে। র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টের মাধ্যমে এই ফল এসেছে। এই কথা জানিয়েছেন চিকিৎসক। তবে কেন আরটিপিসিআর টেস্ট হল না? সেই প্রশ্ন উঠেছে। র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্টে সঠিক ফলাফল আসতে পারে না। এই কথা জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক মহল।

এই বিষয় নিয়ে হোয়াইট হাউস থেকে কোনও মন্তব্য করা হয়নি। র‍্যাপিড অ্যান্টিজেন টেস্ট করার মাধ্যমে ফল সঠিক আসে। সেই বিষয়ে ব্যাখ্যা করেছেন মার্কিন চিকিৎসক। মাত্র চার দিনের মধ্যে ডোনাল্ড ট্রাম্প করোনা জয় করে সুস্থ হয়ে ফিরেছিলেন। এমন খবর ছিল হোয়াইট হাউসের। কিন্তু পরবর্তী কোনও পরীক্ষার কথা হোয়াইট হাউস থেকে জানানো হয়নি। করোনা ভাইরাসের রেজাল্ট নেগেটিভ এসেছে কিনা সেকথাও জানানো হয়নি। মার্কিন প্রেসিডেন্ট নিজে ভোটের প্রচারে চলে যান। এই মুহূর্তে ফের বক্তব্য রাখছেন বিভিন্ন প্রদেশ এগিয়ে।

জনসমক্ষে এসে মাস্ক খুলে ফেলতে দেখা গিয়েছিল প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে। তিনি কিভাবে এই আচরণ করেন? তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছিল। প্রেসিডেন্ট জানিয়েছিলেন, তিনি সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে গিয়েছেন। তাই মাস্কের কোনও প্রয়োজন নেই। কিন্তু বিরোধী শিবির থেকে ফের বিরূপ বক্তব্য রাখা হয়। নিজের করোনা ভাইরাস বিষয় নিয়ে ডোনাল্ড ট্রাম্প তথ্য লুকাচ্ছেন। একথা বলা হয়। শেষপর্যন্ত হোয়াইট হাউসকে আসরে নামতেই হয়েছিল। করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর প্রেসিডেন্টকে দেখছিলেন মিন কনলে। তিনি বক্তব্য পেশ করেছেন। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প সম্পূর্ণ সুস্থ। সে কথা জানান এই চিকিৎসক।

ডোনাল্ড ট্রাম্প সঠিক তথ্য পরিবেশন করেননি। সেই কারণে ফেসবুক তার পোস্ট ডিলিট করে। করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত পোস্ট ফেসবুকে করেছিলেন ডোনাল ট্রাম্প। হোয়াইট হাউসে ফিরে এসে তিনি বার্তা দিয়েছিলেন করোনা ভাইরাসকে ভয় করার কোনও প্রয়োজন নেই। সাধারণ ফ্লুয়ের মতোই এটি। এই কথা করোনা ভাইরাস সম্পর্কে বলেছিলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প।

সেই বক্তব্য জনমানসে বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি করবে। এই আশঙ্কা করেছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ওয়াকিবহাল মহল ডোনাল্ড ট্রাম্পের বক্তব্য নিয়ে দ্বিধাবিভক্ত ছিল। ফেসবুক শেষপর্যন্ত তাঁর এই লেখা সম্পর্কে ব্যবস্থা নিয়েছে। সংস্কার আধিকারিক জানিয়েছেন, ডোনাল্ড ট্রাম্পের এই বক্তব্য ভালো প্রতিক্রিয়া ফেলবে না সাধারণ মানুষের মনে। সে কথা মাথায় রেখেই এই পোস্টকে ফেসবুক নিজে থেকে ডিলিট করেছে। তবে তার আগে পর্যন্ত ২৬ হাজারের বেশি শেয়ার হয়েছে ট্রাম্পের পোস্ট।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।