তাপমাত্রা ফের নামল স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি নীচে

ফোর্থ পিলার

শীত বিদায় নিচ্ছে আনুষ্ঠানিকভাবে। এই কথা আলিপুর আবহাওয়া দফতর আগেই ঘোষণা করেছিল। তাপমাত্রার ওঠানামা চলছে। রবিবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা আরও একবার স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি নীচে নেমে গেল। রাজ্যে তাহলে কি আবার ফিরে আসছে শীত? এ প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে। কিন্তু জানিয়ে দেওয়া হয়েছে সেই সম্ভাবনা আর নেই।

শুধু তাপমাত্রার ওঠানামা আরও বেশ কিছু দিন চলবে। বসন্তের মাঝামাঝি তাপমাত্রার পারদ চড়বে। আজ রবিবার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১৯ ডিগ্রির নিচে নেমে গিয়েছে। স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি কম দিনের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা। ১৯ ডিগ্রির সেন্টিগ্রেড ঘরেই থাকবে তাপমাত্রা। একথা জানানো হয়েছে। আগামী কাল সোমবার পর্যন্ত চলবে এই আবহাওয়া। শীতের অনুভব হবে বঙ্গে।

গতকাল দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ২৭.৪ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড, স্বাভাবিক। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২১.১ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড। স্বাভাবিকের থেকে দুই ডিগ্রি কম। বাতাসের আপেক্ষিক আদ্রতার সর্বোচ্চ পরিমাণ ৮৬ শতাংশ। সর্বনিম্ন পরিমাণ ৩৯ শতাংশ। শুক্রবার থেকেই যথেষ্ট পরিমাণে মেঘ দেখতে পাওয়া গিয়েছে বঙ্গের আকাশে।শনিবার আকাশে যথেষ্ট পরিমাণে মেঘের আনাগোনা ছিল। বেলার দিকে সূর্যের দেখা মেলে। তেমন কোনও তেজ ছিল না। আজ রবিবারও সূর্যের তেজ তেমন নেই।

সকাল থেকেই কুয়াশা থাকছে কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে। বাতাসে শিরশিরানির ভাব যথেষ্ট রয়েছে। পরিস্থিতি এখনও যথেষ্ট মোলায়েম। গরমের অস্বস্তিকর পরিবেশ এখনও তৈরি হয়নি। পশ্চিমের জেলাগুলিতে তাপমাত্রাও যথেষ্ট কম কলকাতার থেকে। বীরভূম, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, বাঁকুড়া প্রভৃতি জেলায় সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পতন যথেষ্ট। তবে শীত আর আসছে না। শীত বিদায় নিচ্ছে বঙ্গ থেকে। যাওয়ার পথে কিছুটা তাপমাত্রার পতন হচ্ছে মাঝেমধ্যে। দোলযাত্রা পর্যন্ত এই বিষয় চলতে থাকবে।

উত্তর ও উত্তর – পশ্চিম ভারতে পশিমী ঝঞ্জা নেই এই মুহূর্তে। ঠান্ডা বাতাস উত্তরের জেলা দিয়ে রাজ্যে আসছে মাঝেমধ্যে। আগামী সপ্তাহ পর্যন্ত উত্তরবঙ্গে শীতের অনুভূতি থাকবে। উত্তর ভারতেও তাপমাত্রার পারদ বাড়বে ক্রমশ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।