তৃণমূলে যোগ দিলেন ‘মন্টু পাইলট’ খ্যাত সৌরভ

ফোর্থ পিলার

রাজীব বন্দোপাধ্যায়ের ইস্তফা একদিকে। অন্যদিকে টলি পাড়ার অভিনেতা সৌরভ দাসের তৃণমূলে নাম লেখানো। টলিউডের মিমি চক্রবর্তী, নুসরত জাহান ও সোহমকে অনুসরণ করলেন এবার সৌরভ দাস। আজ শুক্রবার সর্বভারতীয় তৃণমূল কংগ্রেসে যুক্ত হলেন সৌরভ দাস।

সৌরভের রাজনীতিতে প্রবেশের জল্পনা চলছিল বহুদিন ধরেই। এই বিষয়ে সেসময় কিছু বলেননি অভিনেতা। সম্প্রতি অভিনেতার বক্তব্য, “এখন যে অবস্থায় দাঁড়িয়ে আছে, তাতে সবকিছুই প্রচণ্ড ঘাঁটা। আর সেটাই হওয়ার কথা আর কী! সামনে ভোট, এখন অনেক কাদা ছোঁড়াছুড়ি হবে। কিন্তু বিষয়টা হচ্ছে যে আমি জানি সবকিছু ঠিকই থাকবে। আলটিমেটলি একটা জিনিস বিশ্বাস করি যে হৃদয় দিয়ে কাজ করলে সবকিছু ঠিকই হয়। আমি জানি যে বাংলা বেঁচে উঠবে, বাংলা ভালো থাকবে।”

রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় এদিন বেলায় মন্ত্রিসভা থেকে পদত্যাগ করেন। তিনি পদত্যাগপত্র মুখ্যমন্ত্রীর কাছে পাঠিয়েছিলেন। রাজীব কবে বিজেপিতে যোগ দেবেন? তাই নিয়ে আলোচনা শুরু হয়। সেই সময় তৃণমূল কংগ্রেস ভবনে সাংবাদিক সম্মেলন শুরু করেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়। টলিউড অভিনেতা তৃণমূল কংগ্রেসের যোগ দিচ্ছেন। এই কথা জানানো হয়।

সৌরভ দাস শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের উপস্থিতিতে তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দেন। সৌরভ বলেন, “সৎ থেকে দলের কাজ করব। ঘরে ঢুকে মানুষের কাজ করব। জড়িয়ে ধরব মানুষটাকে। যেটা আমি শিখেছি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দেখে। আমরা রাজনীতি নিয়ে কথা বলি। সব কথার শেষে বলতাম জয় বাংলা। আজ আমার গর্ববোধ হচ্ছে, এটা ভেবে, সে আমার মাথায় দিদির হাত আছে। অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত আছে। তাই এটা আমি বলতে পারি, জয় বাংলাটা সব থেকে জোরে আমিই বলতে পারব।

সৌরভ ‘বয়েই গেল’ সিরিয়ালের মধ্য দিয়ে টলিউডে প্রবেশ করেন। তারপর সিনেমা জগতে একে একে ‘গ্যাংস্টার’, ‘ফাইনালি ভালোবাসা’, ‘সোয়েটার’ ইত্যাদি জনপ্রিয় ছবি করেন। অভিনেতার বেশি জনপ্রিয়তা ওয়েব সিরিজের দুনিয়াতেই। ‘মন্টু পাইলট’, ‘চরিত্রহীন’ ইত্যাদি সিরিজে কাজ করেছেন অভিনেতা। এবার অভিনয়ের পাশাপাশি রাজনীতিতে প্রবেশ করলেন অভিনেতা। তাঁর বিশ্বাস, জনকল্যাণের মাধ্যমেই রাজনৈতিক মহলে এগিয়ে যাবেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।