দিলীপ ঘোষের গাড়িতে হামলা, বোমা মারার অভিযোগ

ফোর্থ পিলার

বিজেপির রাজ্য সম্পাদক দিলীপ ঘোষের উপর হামলার অভিযোগ উঠল। কোচবিহারের শীতলকুচিতে সভা ছিল তার। সেখান থেকে ফেরার সময় তার গাড়ির উপর হামলা হয়। একশো জনের উপর লোক ছিল হামলার সময়। গাড়ি লক্ষ্য করে দুটি বোমা মারা হয়েছে বলে অভিযোগ। বাঁশ ও লাঠি দিয়ে আক্রমণ চালানো হয় বলে জানানো হয়েছে। গাড়ির কাঁচ ভেঙে গিয়েছে।

তাদের গাড়ি লক্ষ্য করে বোমা মারা হয়েছে বলে দাবি দিলীপ ঘোষের। একসময় তিনি একটি বাড়িতে গিয়ে আশ্রয় নিয়েছিলেন প্রাণ বাঁচাতে। পরে তাকে উদ্ধার করা হয়। তার গাড়ির কাঁচ ভেঙে গিয়েছে। গত পাঁচ বছরে এমন হামলা তার উপর হয়নি। এই কথা বলেছেন তিনি। মাঝেমধ্যেই তার উপর হামলা হয়। গাড়ি লক্ষ্য করে ইঁট মারার ঘটনা দেখা যায়। কিন্তু এবার সব কিছু ছাপিয়ে গিয়েছে। এই কথা নিজেই জানিয়েছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। গাড়িতে হেলমেটও পরে বসেছিলেন তিনি৷ ফেসবুক লাইভে ঘটনার বর্ণনা দিয়েছেন।

হেলিকপ্টার করে তিনি এদিন কোচবিহার পৌঁছেছিলেন। তারপর সভা সেরে তিনি গাড়িতে রওনা হয়েছিলেন। তখনই এই আক্রমণ। শারীরিক ভাবে তার বিশেষ চোট লাগেনি। হাতে চোট লেগেছে। তৃণমূলের লোকজন দলীয় পতাকা নিয়ে আক্রমণ করেছে তার উপর। এই অভিযোগ করছেন দিলীপ ঘোষ। পাঁচ বছর আগে দিলীপ ঘোষকে শীতলকুচিতেই আক্রমণ করা হয়েছিল। তৃণমূল এই অভিযোগ মানতে রাজি নয়। বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্বের কারণে এই হামলা বলে দাবি করেছেন তৃণমূল মুখপাত্র কুণাল ঘোষ। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কোচবিহারে সভা করেছেন এদিন। সভামঞ্চ থেকে প্ররোচনামূলক কথা বলেছিলেন তিনি। তারপরেই এই হামলা বলে দাবি করা হচ্ছে। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মঞ্চ থেকে কোনও প্ররোচনা দেন না। এই কথা তৃণমূল দাবি করেছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।