দেশে একদিনে করোনা আক্রান্ত ৬৩ হাজার, সুস্থ ৭০ হাজার

ফোর্থ পিলার

দেশে করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা ৭৩ লক্ষ ৭০ হাজার পেরিয়ে গেল। গত ২৪ ঘন্টায় নতুন করে ৬৩ হাজারের বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ভারত এই মুহূর্তে আক্রান্তের বিচারে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে। প্রথম স্থানে আমেরিকা। ভারতের করোনা ভাইরাসের দ্বিতীয় পর্যায়ের ঢেউ নভেম্বরের পরে আসতে পারে। এই কথা অনুমান করা হচ্ছে।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত তথ্য প্রকাশ করেছে। দেখা গিয়েছে করোনায় গত ২৪ ঘন্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৬৩, ৩৭১ জন। সুস্থ হওয়ার সংখ্যা অনেকটাই বেশি। সাত হাজার জন বেশি সুস্থ হয়েছেন এদিন। একদিনে সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ৭০,৩৩৮। মোট করোনা ভাইরাস জয় করে সুস্থ হয়েছেন ৬৪,৫৩,৭৭৯ জন। এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাসে অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা ৮,০৪,৫২৮ জন।

দেশে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ১,১২,১৬১ জন। ভারতে সুস্থ হওয়ার হার ৮৭.৫৬ শতাংশ। মৃত্যুর হার ১.৫৩ শতাংশ। গত ২৪ ঘন্টায় দেশে করোনা ভাইরাস টেস্ট হয়েছে ১০,২৮,৬২২। মোট করোনা ভাইরাস টেস্ট আরও বাড়ানো হবে। একথাই জানাচ্ছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। পরিস্থিতির দিকে নজর রাখা হচ্ছে। অক্টোবর মাসে দৈনিক সংক্রমণের হার কমেছে অনেকটাই।

দেশে করোনা পরিসংখ্যানে শীর্ষে মহারাষ্ট্র। এই রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৫,৫৪,৩৮৯। মৃত্যু হয়েছে ৪০,৮৫৯ জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৩,১৬,৭৬৯ জন। অন্ধ্রপ্রদেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৭,৬৭,৪৬৫। মৃত্যু হয়েছে ৬৩১৯ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৭,১৯,৪৭৭ জন। কর্নাটকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৭,৩৫,৩৭১ জন। মৃত্যু হয়েছে ১০,১৯৮ জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬,১১,১৬৭ জন।

তামিলনাড়ুতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৬,৭০,৩৯২। মৃত্যু হয়েছে ১০,৪২৩ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৬,১৭,৪০৩ জন। উত্তরপ্রদেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৪,৪৪,৭১১। মৃত্যু হয়েছে ৬৫০৭ জনের। সুস্থ হয়েছেন ৪,০১,৩০৬ জন। দিল্লিতে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ৩,১৭,৫৪৮ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫৮৯৮ জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২,৮৯,৭৪৭ জন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।