নক্ষত্রের সমাপতন, চলে গেলেন ইরফান খান

ফোর্থ পিলার

নক্ষত্রের সমাপতন। চলে গেলেন বিশিষ্ট অভিনেতা ইরফান খান। বলিউড জগতের অন্যতম বিচক্ষণ অভিনেতা আজ বুধবার শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করলেন। অনেক সময় ধরেই তিনি দূরারোগ্য ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন। সম্প্রতি কয়েক মাস আগে তিনি ফিরে এসেছিলেন তার নিজের বাড়িতে।

গতকাল তিনি ফের অসুস্থ হয়ে পড়েন। তার শারীরিক অবস্থার দ্রুত অবনতি ঘটেছিল। তাকে মুম্বাইয়ের কোকিলাবেন হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। সেখানেই তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৫৩ বছর। এত কম বয়সে তার এই চলে যাওয়া মানতে পারছেন না সাধারণ মানুষ থেকে বিনোদন জগতের কেউ। করোনা আবহে ভারতবর্ষ এই মুহূর্তে তটস্থ। তার মধ্যে এই মর্মান্তিক খবর আরও একবার নাড়িয়ে দিল।

১৯৮৮ সালে সালাম বোম্বে ছবিতে তিনি প্রথম অভিনয় করেছিলেন। তারপর তাকে আর পিছন ফিরে তাকাতে হয়নি। তার অভিনয় দক্ষতা সাধারণ মানুষের মন জয় করেছিল। শুধু বলিউড নয় হলিউড পর্যন্ত তার অভিনয়ের দক্ষতা তিনি দেখিয়েছেন। স্টিফেন স্পিলবার্গের জুরাসিক পার্ক সিরিজের শেষ সিনেমাতেও তিনি অন্যতম এক চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। বাংলা সিনেমা ‘ডুব’ – এ তার দক্ষতা দেখেছে বাঙালি দর্শক।

২০১১ সালে পদ্মশ্রী খেতাব পান এই মহান অভিনেতা। ইরফান খানের মৃত্যুতে কার্যত শোকস্তব্ধ গোটা বলিউড। ইতিমধ্যেই অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খান, সলমন খান – সহ বহু বিশিষ্ট অভিনেতা অভিনেত্রী টুইট করে শোকপ্রকাশ করতে শুরু করেছেন। আজই তাঁর শেষকৃত্য সম্পন্ন হবে বলে প্রাথমিক সূত্র খবর পাওয়া যাচ্ছে।

গত ২৫ এপ্রিল ইরফান খানের মা মারা গিয়েছিলেন। রাজস্থানে তার মা ছিলেন। দেশের লকডাউন পরিস্থিতিতে তিনি মাকে শেষ মুহূর্তের জন্য দেখতে যেতে পারেননি। ভিডিও কলে তিনি তার মাকে শেষ দেখেন। এমনটাই শোনা গিয়েছিল।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।