পুরীতে কার্ফু, ৫০০ জন করে এবারও রথের দড়ি টানবেন

ফোর্থ পিলার

ভক্ত জনসমাগমের মধ্যে দিয়ে এবারও যেতে পারবেন না জগন্নাথ দেব। করোনা কালে ৫০০ জনের বেশি ভক্ত তার রথের দড়ি টানতে পারবে না। রথযাত্রা কালে পুরী শহরে জারি থাকবে কার্ফু। এই কথা জানিয়ে দেওয়া হল। পুরীর রথযাত্রা উৎসব এবারও হচ্ছে। কিন্তু দর্শকদের ভক্তদের উপস্থিতি সেখানে থাকবে না।

গতবছর সুপ্রিম কোর্ট ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত নিয়েছিল। করোনাকালে রথযাত্রা করার অনুমতি মহামান্য আদালত দেয়। কিন্তু সেক্ষেত্রে সাধারণ দর্শক-ভক্তদের উপস্থিত থাকার কোনও অনুমতি দেওয়া হয়নি। পুরোহিত, পাণ্ডারা রথের দড়ি টানবেন। পুরীর রাজা এই রথযাত্রার শুভ সূচনা করবেন। এক্ষেত্রে জগন্নাথ, বলরাম ও সুভদ্রা প্রত্যেকের রথ আলাদা হয়। প্রত্যেকটি রথে ৫০০ জন করে ভক্ত উপস্থিত থাকতে পারবেন দড়ি টানার জন্য। তার বেশি মানুষের ভিড় করা যাবে না। ওড়িশার স্পেশাল রিলিফ কমিশনার প্রদীপ জেনা জানিয়েছেন, জগন্নাথ, বলরাম ও সুভদ্রার রথযাত্রা অনুষ্ঠান পালিত হবে। করোনা নেগেটিভ ও টিকার দুই ডোজ নেওয়া ব্যক্তিরাই কেবল অংশ নিতে পারবেন। ওই সময় পুরী জুড়ে কার্ফু জারি করা থাকবে।

যারা রথযাত্রা উৎসবে সামিল হবেন, তাদের প্রত্যেকের করোনা ভাইরাস পরীক্ষা করা হবে। করোনা টেস্ট রিপোর্ট নেগেটিভ এলে তবেই পাণ্ডা, সেবাইতরা উপস্থিত থাকতে পারবেন এই অনুষ্ঠানে। গতবার সুপ্রিম কোর্ট এই নির্দেশনামা জারি করেছিল। এই হিসেবে রথযাত্রার চলাকালীন পুরী শহরে কার্ফু জারি করা হয়েছিল। শেষ পর্যন্ত সেবার রথযাত্রা শান্তিপূর্ণভাবেই শেষ হয়। কোনও বিবাদ হয়নি। এবার দেশে করোনার দ্বিতীয় ঢেউ চলছে। প্রত্যেকটি রাজ্যে করোনা সংক্রমণ ঊর্ধ্বমুখী। এই পরিস্থিতিতে ওড়িশাতেও সংক্রমণ দৈনিক ৬ হাজার করে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে।

করোনা পরিস্থিতিতে এবার রথযাত্রা কি করে হবে? এই প্রশ্ন উঠেছিল। মন্দির কমিটির সিদ্ধান্ত নিয়েছে রথযাত্রা বিষয়ে। গতবার সুপ্রিম কোর্ট যে নির্দেশ জারি করেছিল, তাই এবারও মেনে চলা হবে। গোটা ওড়িশা জুড়ে কেবল পুরীর জগন্নাথ দেবের রথযাত্রা বেরোবে। আর কোনও রথযাত্রা হবে না। দ্বাদশ শতাব্দী থেকে পুরীর রথযাত্রা হচ্ছে। কোনও বার রথযাত্রা বাদ পড়েনি। রথযাত্রা বন্ধ হলে তা অত্যন্ত খারাপ সময়ের ইঙ্গিতবার্তা, অমঙ্গল বহন করে। একথা গতবার সুপ্রিমকোর্টে জানানো হয়েছিল। আদালত প্রথমে রথযাত্রা গত বছর বাতিল করতে বলেছিল। পরে মত বদলে রথযাত্রার জন্য সবুজ সঙ্কেত দেয়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।