ফের বর্ণবিদ্বেষের শিকার সিরাজ, খেলা বন্ধ ছিল দীর্ঘ সময়

ফোর্থ পিলার

শনিবারের পর আজ রবিবার ফের বর্ণবিদ্বেষের স্বীকার হলেন সিরাজ। ক্রিকেট মাঠে ফের আবার দেখাদিল বর্ণবিদ্বেষের ছায়া। সিডনিতে গতকাল অর্থাৎ তৃতীয় দিনের টেস্টেঅভিযোগ উঠেছিল। আজ রবিবার চতুর্থ দিনেও সেই একই ঘটনা ঘটল মাঠে।

সিডনিতে খেলা চলাকালীন মহম্মদ সিরাজের উদ্দেশ্যে গ্যালারি থেকে বর্ণবিদ্বেষী মন্তব্য করা হয় বলে অভিযোগ ওঠে। এরপরই অধিনায়ক অজিঙ্কে রাহান ও আম্পেয়ারদের পুরো বিষয়টি জানান সিরাজ ফলে দীর্ঘক্ষণ বন্ধ হয়ে যায় খেলা।

আম্পায়াররা কথা বলেন ফোর্থ আম্পায়ারের সঙ্গে। তারপরেই সিরাজের থেকে জানতে চাওয়া হয় গ্যালারির কোন জায়গা থেকে তাঁর উদ্দেশে এই ধরনের মন্তব্য করা হয়েছে? আম্পায়ারদের আঙুল দিয়ে গ্যালারির সেই অংশ দেখিয়ে দেন সিরাজ। তারপরেই ব্যবস্থা নেয় পুলিশ। এরপর গ্যালারির ওই অংশ থেকে ৬ জনকে মাঠ থেকে বার করে দেয় পুলিশ। তারপর ফের ১০ মিনিট পর খেলা শুরু হয়।

সিডনি টেস্টের তৃতীয় দিনেও একই ঘটনা ঘটেছিল। লং অনে ফিল্ডিং করার সময়ে যশপ্রীত বুমরাহ এবং সিরাজের উদ্দেশে বর্ণবিদ্বেষীর অভিযোগ তোলা হয়। এরপর ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের তরফে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ডের কাছে লিখিত অভিযোগ জানানো। একটি বিবৃতিতে অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ড জানিয়েছ , এই ধরনের ঘটনা খেলার মাঠে অনভিপ্রেত। বোর্ড যথাযথ ব্যবস্থা নেবে। এদিন তত্‍ক্ষণাত সেইবব্যবস্থা নিল প্রশাসন।

ক্রিকেট মাঠে বর্ণবাদী মন্তব্যের অভিযোগ এই প্রথম নয়। অতীতেও এমন অনেক ঘটনা আছে।এই ঘটনার তীব্র নিন্দা করেছেন ভিভিএস লক্ষ্মণ। ভারতের প্রাক্তন ক্রিকেটার বলেন, ‘সিডনির মাঠে যা হল তা খুবই দুর্ভাগ্যজনক। খেলার মাঠে এই ধরণের ঘটনার কোনও স্থান নেই। খেলার ও খেলোয়াড়দের প্রতি সম্মান দেখাতে না পারলে মাঠে এসে খেলোয়াড়ি পরিবেশ নষ্ট করার অধিকার কারোর নেই।’

এছাড়াও অস্ট্রেলিয়ার মাঠে খেলার সময় বর্ণবিদ্বেষমূলক মন্তব্যের সামনে পড়ার বিষয়টি নতুন নয় বলেই জানিয়েছেন হরভজন সিং। প্রাক্তন ভারতীয় ক্রিকেটার টুইটারের লেখেন, ‘অস্ট্রেলিয়ার খেলার সময় ধর্ম, বর্ণ নিয়ে অনেকবার বিদ্বেষমূলক কথা শুনেছি। ক্রিকেট দর্শকদের একাংশ বরাবরই এমনটা করে। এই বিরক্তিকর অভিজ্ঞতা থেকে ক্রিকেটাররা কবে রেহাই পাবে?’

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।