বর্ষার প্রথম বৃষ্টিতে জলমগ্ন মুম্বই, নাকাল সাধারণ মানুষ

ফোর্থ পিলার

মহারাষ্ট্রে বর্ষা ঢুকেছে। প্রথমদিনের বৃষ্টিতেই জলমগ্ন বাণিজ্য নগরী মুম্বই। শহরের বিভিন্ন এলাকায় জল দাঁড়িয়ে গিয়েছে। যোগাযোগ ব্যবস্থা অনেকটাই সমস্যায় পড়েছে। ট্রেন লাইনে দাঁড়িয়ে যায় হল। বন্ধ হয়ে যায় পরিষেবা। হিসেবের একদিন আগেই মহারাষ্ট্রে বর্ষা এসেছে। বৃষ্টির দিনগুলিতে বাণিজ্য নগরী অত্যন্ত ভয়াবহ হয়ে ওঠে। দিন কয়েকের টানা বৃষ্টিতে জলমগ্ন হয়ে যায় গোটা মুম্বই।

যাতায়াত ব্যবস্থা সম্পূর্ণ স্তব্ধ হয়ে যায়। এবার শুরুতেই অনেক জায়গায় এই ঘটনা দেখতে পাওয়া গেল। মহারাষ্ট্রের আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, আনুমানিক ১০ জুন এই বর্ষা মহারাষ্ট্রের ঢোকার কথা ছিল। ৯ জুন চলে এসেছে বর্ষা। গোটা রাজ্যে ছড়িয়ে পড়ছে। মঙ্গলবার থেকেই টানা বৃষ্টি শুরু হয়ে যায়। বুধবারেও চলছে সেই বৃষ্টি। মঙ্গলবার সকাল থেকে ২৪ ঘন্টা টানা বৃষ্টিতে জলমগ্ন বহু এলাকা। বুধবার সকাল আটটা পর্যন্ত পাওয়া খবরে ২৪ ঘন্টায় ৭৭ মিলিমিটার বৃষ্টি হয়েছে বাণিজ্য নগরীতে।

মঙ্গলবার সকাল আটটা থেকে বুধবার সকাল আটটা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টায় পূর্ব শহরতলিতে ৬৬.৯৯ শতাংশ বৃষ্টি রয়েছে। পশ্চিম শহরতলিতে শতাংশ বৃষ্টি হয়েছে ৪৮.৯৯ শতাংশ। বহু রাস্তাতেই হাঁটু থেকে কোমর জল দাঁড়িয়ে গিয়েছে। করোনা ভাইরাস আবহে লকডাউন পরিস্থিতিতে বিধি-নিষেধ চলছে। তাই গাড়ির সংখ্যা রাস্তায় তুলনামূলকভাবে কম। না হলে তীব্র যানজটের সমস্যা দেখা দিত। রাস্তায় নেমে বহু মানুষ নাকাল হয়েছেন।

কিং সার্কেলের গান্ধী মার্কেট অঞ্চল জলে ডুবে গিয়েছে। ভিলে পার্ক এলাকা জলের তলায়। রেললাইন ডুবে গিয়েছে অনেক জায়গাতে। ছত্রপতি শিবাজী থেকে কুরলা অবধি রেল লাইন জলের তলায় চলে গিয়েছিল। ওই পথে ট্রেন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। আরও বেশ কিছু জায়গায় ট্রেন লাইনে বন্ধ হয়ে গিয়েছিল। জল নামলে ট্রেন পরিষেবা ফের চালু হয়। আগামী কয়েক দিন টানা বৃষ্টি হবে মহারাষ্ট্রে। বানভাসি হওয়ার আশঙ্কাও থাকছে। কেরলে ৩ জুন বর্ষা এসেছে। মহারাষ্ট্রতেও বর্ষা ঢুকে গেল।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।