বাগবাজারে ভয়াবহ আগুন, পুড়ে খাঁক হাজারি বস্তি

ফোর্থ পিলার

ভয়াবহ আগুন উত্তর কলকাতার বাগবাজারে। সন্ধ্যে সাড়ে ছ’টা নাগাদ আগুনের শিখা প্রথম দেখতে পাওয়া যায়। এই খবর লেখা পর্যন্ত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। বরং কয়েকগুণ বেশি ছড়িয়ে গিয়েছে সেই বিধ্বংসী আগুন। বাগবাজারের ক্যানাল রোড সংলগ্ন এলাকা এই মুহূর্তে দাউদাউ করে জ্বলছে।

গোটা হাজারি বস্তি কার্যত আগুনের লেলিহান শিখায় ছারখার। একটা সময় মুহুর্মুহু সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হওয়ার শব্দ পাওয়া যাচ্ছিল। পাশাপাশি গঙ্গার ধার থেকে হিমশীতল ঠান্ডা বাতাস বইছে। ফলে মুহূর্তে আগুন ছড়িয়ে যাচ্ছে দ্রুত। দমকলের ইঞ্জিন এই মুহূর্তে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য কাজ চালাচ্ছে। বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের টিম এসে হাজির। গোটা এলাকার অন্যান্য বাড়িগুলিকে খালি করে দেওয়া হয়েছে।

জানা যাচ্ছে, বাগবাজারের মায়ের বাড়ির একটি অংশে আগুনের আঁচ এসে পড়েছে। অফিস সংলগ্ন পাশে আগুন ধরে গিয়েছে। স্থানীয় বাসিন্দারা অভিযোগ জানাচ্ছেন, পুলিশ ও দমকল দেরি করে এসেছে। স্থানীয় বাসিন্দারা পুলিশের একটি গাড়িতে ভাঙচুর পর্যন্ত চালায়। পরিস্থিতি অত্যন্ত ভয়াবহ। তিন ঘন্টা হয়ে গেলেও আগুন নিয়ন্ত্রণে আসার কোনও সম্ভাবনা নেই। বরং আরও বেশি আগুন ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে।

বিপর্যয় মোকাবিলা দফতরের টিম, কলকাতা পুলিশ ও দমকলকর্মীরা কার্যত এই মুহূর্তে যুদ্ধ চালাচ্ছেন আগুনের সঙ্গে। উত্তর কলকাতার একটি অংশ সন্ধ্যে থেকেই সম্পূর্ণ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এই আগুনের কারণে যানজট দেখা দিয়েছিল শহরে। কিন্তু পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ আকার নিচ্ছে সময়ের সঙ্গে সঙ্গে। গঙ্গাসাগরে ছিলেন পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। তিনি সেখান থেকে রওনা দিয়েছেন। রাতেই তিনি ঘটনাস্থলে পৌঁছে যাবেন। হাজারি বস্তি এলাকায় এই মুহূর্তে মানুষের হাহাকার। সাধারণ মানুষ সম্পূর্ণ হারিয়ে রাস্তায় হাহুতাশ করছেন।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।