বিডিও ও স্ত্রীকে বেঁধে রেখে ডাকাতি হাবরায়, উদ্বিগ্ন প্রশাসন

ফোর্থ পিলার

বিডিও ও তার স্ত্রীকে মারধর করে হাত-পা বেঁধে লুঠপাট চালাল দুষ্কৃতীরা। এই ঘটনার পরেই আতঙ্কের ছায়া স্পষ্ট হাবড়ার প্রশাসনিক মহলে। প্রশাসনিক কর্তার পরিবারের সঙ্গেই যদি এমন হয় তাহলে সাধারণ মানুষের নিরাপত্তা কোথায় সে নিয়েও উঠেছে প্রশ্ন। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার গভীর রাতে হাবরা এক নম্বর ব্লকের বিডিও আবাসনে।

শুভ্র নন্দী ওই এলাকার বিডিও। সূত্র মতে জানা গিয়েছে, রাত পৌনে তিনটা নাগাদ তাদের বাড়িতে হানা দেয় জনা পাঁচেক দুষ্কৃতী। ধারালো অস্ত্র দিয়ে তাদের ভয় দেখানো হয়। শুভ্রবাবু ও তার স্ত্রী রাতে ঘুমোচ্ছিলেন। ঘরে কারা এসেছে এমনটা বুঝতে পেরে তাদের ঘুম ভাঙে। প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দিয়ে স্বামী-স্ত্রীর হাত-পা বেঁধে ফেলা হয়। টু শব্দ করলেও রেহাই মিলবে না জানানো হয়েছিল। এরপর একঘন্টা ধরে চলে ডাকাতি। গোটা বাড়ি লণ্ডভণ্ড করে দুষ্কৃতীরা। চারটি সোনার চেন, নগদ ১২ হাজার টাকা, চারটি মোবাইল ফোন নিয়ে দুষ্কৃতীরা চম্পট দেয়। স্বামী-স্ত্রীর গোঙানির শব্দে সাধারণ মানুষ বাড়িতে উপস্থিত হয়। দেখা যায় এমন ঘটনা।

রাতেই পুলিশ আধিকারিকরা তদন্তে আসেন।
প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, দুষ্কৃতীরা বাড়ির পিছনের কোলাপসিবল গেট ও একটি দরজা ভেঙে ভেতরে ঢোকে। তাদের কাছে আগাম খবর ছিল এটা প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান। তাদের খোঁজে তল্লাশি চালানো হচ্ছে। দুষ্কৃতীদের কাছে কোনও আগ্নেয়াস্ত্র ছিল না, এমনটাই অনুমান। অশোকনগর এলাকায় এমন একটি ডাকাতি সম্প্রতি হয়েছিল। একই ধাঁচে এই ডাকাতিও। সম্ভবত একই দল এই কাজ করেছে বলে প্রাথমিকভাবে অনুমান।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।