বৃষ্টি হলেও গুমোট আবহাওয়ায় বাড়বে অস্বস্তি

ফোর্থ পিলার

বৃষ্টি হলেও আদ্রতাজনিত অস্বস্তি কাটছে না। আগামী তিন-চার দিন উত্তর ও দক্ষিণবঙ্গতে বৃষ্টির আবহাওয়া থাকবে। সেই কথাই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। তবে কোনওভাবেই গরম কমবে না। সাময়িক স্বস্তি পাওয়া যেতে পারে। গতকাল বুধবার দুপুর থেকে দক্ষিণবঙ্গের বেশকিছু জেলায় ভারী বৃষ্টি হয়েছে। হুগলি, হাওড়ার একটি অংশ, পশ্চিমের জেলাগুলিতে বৃষ্টি হয়।

আজ সকাল থেকে কলকাতা সহ আশেপাশের জেলাগুলিতে এক- দুই পশলা বৃষ্টি হয়েছে। সাময়িক স্বস্তি এসেছিল বেলা বাড়তেই। ফের ফিরে এসেছে অস্বস্তি। আবহাওয়া দফতর জানাচ্ছে, রবিবার পর্যন্ত বৃষ্টির আবহাওয়া থাকবে। তবে ধারাবাহিকভাবে ভারী বৃষ্টি হবে না। উত্তরবঙ্গে বৃষ্টির প্রভাব থাকছেই। দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কালিম্পং, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ার জেলায় বৃষ্টির পরিমাণ বাড়বে।

দক্ষিণবঙ্গে মৌসুমী অক্ষরেখা এই মুহূর্তে অবস্থান করছে। তবে তার স্থান বদল হচ্ছে বিভিন্ন সময়ে। অসম, উত্তর-পূর্ব রাজ্যগুলির উপর একটি ঘূর্ণাবর্ত দাঁড়িয়ে রয়েছে। আর বঙ্গোপসাগর থেকে জলীয়বাষ্প রাজ্যে প্রবেশ করছে। বাতাসে জলীয়বাষ্প বেশি থাকার কারণে আদ্রতাজনিত অস্বস্তি ক্রমে বাড়ছে। ভাদ্রমাসের পচা গরমে ঘাম ঝরছে। দক্ষিণবঙ্গের মানুষের এই পরিস্থিতি থেকে রেহাই পাওয়া সম্ভব নয়। গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.৫ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড। স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি বেশি। সর্বনিম্ন ২৬ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড। গতকাল আপেক্ষিক আদ্রতার সর্বোচ্চ পরিমাণ ছিল ৯৭ শতাংশ। সর্বনিম্ন ৬৯ শতাংশ। এর ফলেই অস্থিরতা বেড়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে বৃষ্টি হয়েছে দফায় দফায়। তাপমাত্রা কিছুটা কমেছে সকালের দিকে। তবে সারাদিন এই গুমোট আবহাওয়া থাকবে। ফলে অস্বস্তিসূচক ক্রমে বাড়বে। এ কথা বলাই যায়। ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা কোনও জেলাতে এই মুহূর্তে নেই। দক্ষিণবঙ্গের পশ্চিমের জেলাগুলিতে বৃষ্টির পরিমাণ বাড়তে পারে কিছুটা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।