“ব্রেন সার্জন কখনও হার্টের ডাক্তারকে বলতে পারে না কি করা উচিত”, বললেন তাপসী

ফোর্থ পিলার

অনেকদিন থেকেই তাপসী জোরকদমে প্রস্তুতি নিচ্ছেন তার নতুন সিনেমা “রাসমি রকেট”-এর জন্য। গল্পটি একটি শক্তিশালী ও তেজি মেয়ে রেশমিকে নিয়ে। এই রেশমির চরিত্রে অভিনয় করছেন তাপসী নিজেই। এমনকি তিনি সুঠাম পেশীবহুল চেহারাও তৈরি করেছিলেন এই রেশমি চরিত্রটির জন্য। তাকে এই রূপে দেখতে পেয়ে আপামর সিনেমাপ্রেমীরা এবং তাফসীর অনুরাগীরা তার প্রশংসায় পঞ্চমুখও হয়েছিলেন।

তিনি যে শুধুমাত্র ‘রেশমি’ চরিত্রটির জন্য নিজেকে বদলেছিলেন তা নয়। তার পরের সিনেমা “সাব্বাস মিঠু”-র মিতালী চরিত্রটির জন্যও নিজেকে সাজিয়ে নিয়েছিলেন। এই সিনেমাটি ভারতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মিতালি রাজ এর জীবনকে নিয়ে। সেজন্য তাফসীর এরূপ জোরকদমে প্রস্তুতি।

অন্যদিকে গত কয়েক মাস ধরে তাপসী পান্নুর ইনস্টাগ্রামে পোস্টে তার প্রেমিকের মন্তব্য বেশ নজর কাড়ে নেটিজেনদের। ২০১২ সালে সামার অলিম্পিকে রৌপ্যপদক প্রাপ্ত বিখ্যাত ব্যাডমিন্টন খেলোয়াড় ম্যাথিউস বো। তার সঙ্গে তাপসীর সম্পর্কের কথা কারও অজানা নয়। অর্থাৎ পরপর দুটি খেলোয়ারের চরিত্রে দেখা যাবে তাপসী পান্নুকে। সেই জন্যই নেটিজেনদের ধারণা তার প্রেমিকই তাকে সাহায্য করছেন এই খেলোয়াড় চরিত্রগুলির জন্য।

এইজন্যই তাপসী বলেছেন, “ব্রেন সার্জন কখনোই হার্টের ডাক্তারকে বলতে পারেন না কি করা উচিত। আমার প্রেমিক খেলোয়ার ঠিকই। কিন্তু আমার ও তার জোন সম্পূর্ণ আলাদা। সবথেকে বড় কথা প্রত্যেকটা খেলাও আলাদা। এক্ষেত্রে কখনো কোনোটার সঙ্গে তুলনা করা উচিত নয়।”

তাপসী আরও বলেন, “আমি খুব ভালোভাবেই ব্যক্তিগত জীবন ও কাজের মধ্যে ভারসাম্য রাখতে জানি। কখনো নিজের কাজকে বাড়ি পর্যন্ত টেনে নিয়ে যায়নি। যতটা পারি নিজেই নিজের কাজটা সম্পন্ন করার চেষ্টা করি।” তাপসীর এই মন্তব্যে কেউ কেউ আহতও হন। তবে প্রত্যেকেই মুখিয়ে আছেন ওই পরপর দুটি খেলোয়াড় চরিত্রে তাপসীকে দেখার জন্য।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।