ভারতীয় স্ট্রেন সুপার স্প্রেডার, অত্যন্ত উদ্বেগ প্রকাশ হুর

ফোর্থ পিলার

ভারতের করোনা ভাইরাস অবস্থা সম্পর্কে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। ভারতের ভাইরাস স্ট্রেন (B.1.6.17) যথেষ্ট ভয়াবহ। গোটা দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়া জুড়েই এই মুহূর্তে ভারতীয় স্ট্রেন দাপট দেখাচ্ছে। ভাইরাস অত্যন্ত সুপার স্প্রেডার হিসেবে এই মুহূর্তে তার কাজ চালাচ্ছে। তাই প্রতিদিন দ্রুতহারে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ছে। দেশে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়ছে লাফিয়ে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানাচ্ছে ভারতের এই ভাইরাস তার রূপ বদল করেছে অনেকটাই। করোনা ভাইরাসের প্রথমদিকে যে রূপ দেখা গিয়েছিল তার থেকে এখন সেটি অনেক শক্তিশালী। এর আগে ব্রিটেন, ব্রাজিল ও দক্ষিণ আফ্রিকা দেশের স্ট্রেন নিয়ে উদ্বিগ্ন হয়েছিল বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। এখন ভারতের স্ট্রেন (B.1.6.17) নিয়ে উদ্বিগ্নতা রয়েছে। বিশ্বের বহু দেশ ভারতের সঙ্গে এই মুহূর্তে বিমান পরিসেবা যোগাযোগ বন্ধ করেছে।

ভারতের সংক্রমণ কমানোর জন্য বিভিন্ন দেশ থেকে ওষুধ, অক্সিজেন, অন্যান্য জিনিসপত্র সরবরাহ করা হচ্ছে। টিকাকরণ দ্রুতগতিতে না হলে ফল অত্যন্ত ভয়াবহ হবে। এ কথা বারবার বলা হচ্ছে। কেন কেন্দ্রীয় সরকার টিকাকরণের ক্ষেত্রে জোর দিচ্ছে না? সেই প্রশ্ন উঠেছে বিভিন্ন মহল থেকে। আন্তর্জাতিক মহলেও ভারত সরকারের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানাচ্ছে, ভারতীয় স্ট্রেন (B.1.6.17) তার ভয়াবহতা তুলে ধরছে। শুধু মানুষকে অসুস্থ করাই নয়, শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতাকেও কমিয়ে দিচ্ছে এই স্ট্রেন।

ব্রাজিল ও দক্ষিণ আফ্রিকায় ভাইরাসের এই স্ট্রেন পাওয়া গিয়েছিল। তার একত্রিত চরিত্র দেখতে পাওয়া যাচ্ছে ভারতীয় স্ট্রেনে। এই ঘটনাই আরও উদ্বেগের। সংক্রমণের গ্রাফ সর্বোচ্চ সীমায় পৌঁছাবে মে মাসে। এ কথা বলা হচ্ছে। হুর করোনা বিরোধী বিভাগের প্রধান মারিয়া ভ্যান কেরকভ জানিয়েছেন, ভাইরাস দ্রুত চরিত্রবদল করছে ভারতের ক্ষেত্রে। ভ্যাকসিনের প্রথম জোড নেওয়ার পরেও সেই কারণে সংক্রমণ ছড়াচ্ছে সাধারণ মানুষের মধ্যে।

ছয় ফুটের বেশি দূরত্বতেও সংক্রমণ কার্যকর থাকে। অর্থাৎ পরিস্থিতি যথেষ্ট জটিল। ভ্যাকসিন দুটি ডোজ সম্পূর্ণ নেওয়া থাকলে, এই সংক্রমণ অনেকটাই কমবে আশা করা হচ্ছে। গত বছর অক্টোবর মাসে এই ভারতীয় স্ট্রেনের (B.1.6.17)
খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল। তখনই অশনিসঙ্কেত জানিয়েছিলেন বিজ্ঞানীরা। কিন্তু ভারত সরকার কোনও ভূমিকা গ্রহণ করেনি। এই অভিযোগ উঠতে শুরু করেছে বিভিন্ন মহলে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।