মধ্য রাতেও হোয়াইট হাউসের জন্য হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে বাইডেন- ট্রাম্প

ফোর্থ পিলার

হাড্ডাহাড্ডি লড়াই চলছে আমেরিকার মসনদে বসার জন্য। জো বাইডেন এগিয়ে রয়েছেন ডোনাল্ড ট্রাম্পের থেকে। কিন্তু সার্বিক ফল বিচার করলে ডোনাল্ড ট্রাম্প কার্যত ঘাড়ের উপর নিঃশ্বাস ফেলছে। এখনও বহু গুরুত্বপূর্ণ প্রদেশের ফল গণনা বাকি। সেই সমস্ত তথ্য এলে পরিস্থিতি ঘুরে যেতে পারে। একথা মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল। শেষপর্যন্ত হোয়াইট হাউসের সিংহাসনে কে বসবেন? তাই নিয়ে এখনও যথেষ্ট টানাটানি চলছে।

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে এখন মধ্যরাত। কিন্তু রাজনৈতিক প্রেক্ষাপটে এক ঐতিহাসিক সময়
একের পর এক প্রদেশের ফল গণনা হয়ে আসছে। রাজনৈতিক মহল মনে করছে, বাইডেন সম্পর্কে মানুষের যতটা উচ্ছ্বাস ছিল, তার পূর্ণতা ভোট পড়েনি। ডোনাল্ড ট্রাম্প যথেষ্ট ভালো ফল করছেন। ৫০ শতাংশ ভোট ডোনাল্ড ট্রাম্প নিজের দখলে রাখতে পারেন। একথাও আন্দাজ করা হচ্ছে। জো বাইডেন ফল গণনায় এগিয়ে রয়েছেন। শেষ পর্যন্ত তিনি জিতবেন। নিজে টুইট করেছেন এই কথা। এই মুহূর্তে বাইডেন ২২৩ আসন পেয়েছেন, ট্রাম্প পেয়েছেন ১৪৫। ২৭০ পেতে হবে জিততে। এখনও বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যে ফলাফল আসেনি। 

ডোনাল্ড ট্রাম্প লিখেছেন, কিছুতেই তিনি ফলস ভোটিং হতে দেবেন না। রাতে সেই সম্ভাবনা থাকবে বলেও আশঙ্কা করা হচ্ছে। তার থেকে পরিস্থিতি বলছে বহু গুরুত্বপূর্ণ প্রদেশে জো বাইডেন জিতেছেন। এগিয়ে রয়েছেন আরও অনেক জায়গায়। নিউজার্সিতে জো বাইডেন জিতেছেন। তবে সেনেটে এখনও খুব একটা ভালো ফল করতে পারেনি তারা। অনেকে মনে করছিলেন সহজেই জো বাইডেন জিতবেন। কিন্তু প্রাথমিক ট্রেন্ড অনুযায়ী, যথেষ্ট ভালো লড়াই করছেন ট্রাম্প। গোনা ভোট অনুসারে ৫০.২৩ শতাংশ ভোট গিয়েছে ট্রাম্পের ঝুলিতে। ইলেকটরাল ভোটের হিসেবে ট্রাম্প কিছুটা পিছিয়ে। এখনও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রাজ্যে ভোটিং শুরু হয়নি। 

এই খবর লেখা পর্যন্ত ১৮ রাজ্যে জয়ী ট্রাম্প। বাইডেন জিতেছেন ১৭ রাজ্যে। অ্যারিজোনা, মিনেসোটা ও মেইনে এগিয়ে বাইডেন। অন্যদিকে ট্রাম্প এগিয়ে মন্টানা, আইওয়া, টেক্সাস, জর্জিয়া, ফ্লোরিডা, নর্থ ক্যারোলিনা, ওহাইও, মিশিগান, পেনসেলভ্যানিয়া, উইসকনসিন, আইওয়ায় এগিয়ে ট্রাম্প। অনেক জায়গায় সবে ভোটিং শুরু হয়েছে। আজ সম্পূর্ণ ফলাফল জানা যাবে না হয়তো। এই মুহূর্তে বাইডেন পেয়েছেন ২০৯ আসন, ট্রাম্প পেয়েছেন ১১৮। এখনও ফল আসেনি পেনসেলভেনিয়া, মিশিগানের। এখান থেকে নির্ধারিত হতে পারে ভোটের ফলাফল। 

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।