রাজ্যে একদিনে আক্রান্ত ৩৮৯, টেস্ট নামল ১৯ হাজারে

ফোর্থ পিলার

রাজ্যে সোমবার করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৩৪৯ জন। সুস্থ হয়েছেন ৫৬৯ জন। একদিনে মারা গিয়েছেন ১০ জন। রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর এই তথ্য সোমবার রাতে প্রকাশ করেছে। সোমবার করোনা টেস্ট আরও কম পরিমাণে হয়েছে। এই তথ্য দুশ্চিন্তা কিছুটা। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক বরাবর টেস্টের সংখ্যা বাড়ানোর কথা বলে এসেছে। সোমবার রাত পর্যন্ত রাজ্যে করোনা ভাইরাস টেস্ট হয়েছে ১৮,৮৭৫। রবিবার এই টেস্টের সংখ্যা ছিল ২৬ হাজার।

গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে করোনায়। তাদের মধ্যে পাঁচজন উত্তর ২৪ পরগনার বাসিন্দা। কলকাতার তিনজন বাসিন্দা মারা গিয়েছেন। এখনও পর্যন্ত রাজ্যে করোনার বলি ১০ হাজার ৬৩ জন। শেষ পাওয়া তথ্য অনুসারে রাজ্যে করোনা আক্রান্ত মোট ৫ লক্ষ ৬৫ হাজার ৬৬১ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৫ লক্ষ ৪৮ হাজার ৭০৫ জন। এই মুহূর্তে একটিভ কেসের সংখ্যা ৬৮৯৩। এই সংখ্যাও কমেছে অনেকটাই।

কলকাতায় এদিন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৯০ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৫০ জন। এই সংখ্যা ভীষণই ভালো। উত্তর ২৪ পরগনায় আক্রান্ত ১২৮ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১১৬ জন। এই দুই জেলায় সংক্রমণ এখনও বেশি। লালমাটির জেলাগুলিতে সংক্রমণ প্রায় নেই বললেই চলে৷ উত্তরবঙ্গেও একই ছবি দেখা যাচ্ছে। রাজ্যে সুস্থতার হার সামান্য আরও বেড়েছে। সুস্থতার হার এই মুহূর্তে ৯৭ শতাংশ।

সোমবারও রাজ্যে করোনার টিকা দেওয়া হয়েছে। এই সপ্তাহে চলবে টিকাপ্রদান কর্মসূচি। চিকিৎসকরা জানাচ্ছেন, টিকা নেওয়ার একটা ধাপ পেরোলে সংক্রমণ আরও কমবে। কারণ তখন সংক্রমণ ছড়ানোর জায়গা কমে যাবে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।