শেষদিকের ব্যাটিং ঝড়ে বিধ্বস্ত পঞ্জাব, ম্যাচ জিতল রাজস্থান

ফোর্থ পিলার

রবিবার শারজাহ ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মুখোমুখি ছিল রাজস্থান রয়্যালস এবং কিংস ইলেভেন পঞ্জাব। এই ম্যাচে রাজস্থান রয়্যালস টসে জিতে প্রথমে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয়।

টসে হেরে প্রথমে ব্যাটিং করতে এসে মারমূখী পঞ্জাবের দুই ওপেনার ব্যাটসম্যান। কিংস ইলেভেন পাঞ্জাবের অধিনায়ক লোকেশ রাহুল ৫৯ বলে ৬৯ এবং ময়ঙ্ক আগরওয়াল ১০৬ রানের দুরন্ত একটু ইনিংস খেলেন। পঞ্জাবের অসাধারণ ব্যাটিং দেখে হতবাক দুই টিমের সদস্যরাই।তারপর ব্যাটিংয়ে আসে পুরান। ৮ বলে ২৫ রানের একটি ছোট অথচ জোরালো ইনিংস খেলে কিংস ইলেভেন পঞ্জাব ২২৪ রানের একটি বড় টার্গেট ছুড়ে মারেন মাত্র দুই উইকেটের বিনিময়ে।

তারপর ব্যাটিং করতে নামেন রাজস্থানের ব্যাটসম্যানরা। পিছিয়ে ছিলেন না তারাও। পঞ্জাবের মতোই মারমুখী হয়ে উঠেছিলেন রাজস্থানের ওপেনাররাও। কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত পাওয়ার প্লে তে উইকেটের ছন্দপতন ঘটে।কিন্তু তা সত্ত্বেও দমিয়ে রাখা যায়নি তাদের। সঞ্জু স্যামসনের ৪২ বলে ৮৪ এবং স্টিভ স্মিথের ২৭ বলে ৫০ এর ইনিংস টিমকে এগিয়ে নিয়ে যায় অনেকটা।

তারপর রাজস্থানের উইকেটের ছন্দপতন ঘটতে থাকে তাড়াতাড়ি। কিন্তু না!তাতেও থামানো যায়নি রাজস্থান রয়্যালসকে। রাহুল তেয়াটিয়া এক ওভারে পাঁচটা ছয় হাঁকিয়ে টিমকে জয়ের দোরগোড়ায় নিয়ে যায়। তিনি ৩১ বলে ৫৩ রানের একটি অসাধারণ ইনিংস টিমকে উপহার দেন।পঞ্জাবকে ৪ উইকেটে হারিয়ে জয়ের হাসি হাসল রাজস্থানের সেনারা।

এত বড় একটা টার্গেট দেওয়াও পরেও পঞ্জাবের হার অপ্রত্যাশিত ছিল সকলের কাছেই। তবে রাজস্থানের ব্যাটসম্যানদের দুরন্ত ব্যাটিং দেখে ১০ ওভারেই পরেই ধরে নেওয়া গিয়েছিল যে রাজস্থানের কাছেও সুযোগ একেবারেই নেই তা নয়।

এটিই এখনও এই মরসুমের আইপিএলে সবচেয়ে ভালো ম্যাচ। অনেকেই মনে করছেন এই কথা। ২০০ এর উপর রান তাড়া করে জেতা এক টানটান উত্তেজনাপূর্ণ খেলা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।