সর্বনিম্ন তাপমাত্রা নামলো আরও এক ডিগ্রি, জাঁকিয়ে আসছে শীত

ফোর্থ পিলার

সর্বনিম্ন তাপমাত্রা আরও এক ডিগ্রি নামল কলকাতা সহ দক্ষিণবঙ্গের আশেপাশের জেলায়। আলিপুর আবহাওয়া দফতর আগেই জানিয়েছিল, শীত এসে গিয়েছে। তাপমাত্রার পতন এই মুহূর্তে অবশ্যম্ভাবী। গত তিনদিন ধরে সেই ঘটনাই ঘটছে। জানা যাচ্ছে, কলকাতার সর্বনিম্ন তাপমাত্রা শনিবার সকালে ১৯.১ ডিগ্রি ছিল। স্বাভাবিকের থেকে ২ ডিগ্রি কম। গত ৫ দিন ধরেই সর্বনিম্ন তাপমাত্রার পারদ নেমেছে।

দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য জেলাতেও পারদ নেমেছে একইভাবে। পশ্চিম বর্ধমান, পূর্ব বর্ধমান, নদিয়া, মেদিনীপুর জেলায় তাপমাত্রা আরও দুই ডিগ্রী কম থাকছে। মাঝ রাত থেকে ভোর পর্যন্ত তাপমাত্রা অনেকটাই নেমে যাচ্ছে। বাতাসে কুয়াশা ভিড় করছে ভোরবেলায়। আগামী ৭ দিনে পরিস্থিতি আরও বদল হবে। তাপমাত্রার পারদ নামবে আরও অনেকটাই। কালীপুজোতে দক্ষিণবঙ্গ যথেষ্ট ভাল ঠান্ডার মধ্যে দিয়ে যাবে। এই কথা জানিয়ে দিয়েছে আবহবিদরা। তবে এখনও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা খুব একটা নামেনি। স্বাভাবিকের থেকে বেশি রয়েছে সেটি।

গতকাল সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩২.৩ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড। স্বাভাবিকের থেকে ১ ডিগ্রি বেশি। আজও সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রয়েছে ৩২ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ যথেষ্ট বেশি থাকছে। সর্বোচ্চ আপেক্ষিক আদ্রতা ৯৩ শতাংশ, সর্বনিম্ন ৩২ শতাংশ। আপেক্ষিক আদ্রতা থাকায় দিনের বেলা অস্বস্তি থাকছেই। আবহবিদরা জানাচ্ছেন, দিনের বেশ কিছুটা সময় তাপ অনুভব হচ্ছে। বিকেলের পর থেকে পরিস্থিতির বদল হচ্ছে দ্রুত।

দিল্লির মৌসম ভবন জানাচ্ছে পঞ্জাব, হরিয়ানা, দিল্লি, উত্তরপ্রদেশ, বিহার, ওড়িশা, পশ্চিমবঙ্গ রাজ্যগুলিতে তাপমাত্রার পারদ আগামী তিন দিনে অনেকটাই নামবে। ভোরবেলা কনকনে শীতের অনুভব আসতে চলেছে। শুধু তাই নয়, কুয়াশার চাদরে চারদিক ঢাকা থাকবে। দক্ষিণের রাজ্যগুলিতে এখনও বৃষ্টির পরিবেশ রয়েছে। নিম্নচাপের জেরে মাঝেমধ্যে বৃষ্টি চলছে। তাই সামগ্রিক পরিস্থিতি এখনও সম্পূর্ণ শীতের জায়গায় আসেনি।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।