হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট অত্যন্ত গুরুতর, চতুর্থ টেস্টে অনিশ্চিত হনুমা বিহারী

ফোর্থ পিলার

হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট অত্যন্ত গুরুতর। ব্রিসবেনের টেস্ট ম্যাচে অনিশ্চিত হয়ে পড়লেন হনুমা বিহারী। তাকে চতুর্থ টেস্টের চূড়ান্ত একাদশে দেখতে পাওয়া যাবে না। শুধু তাই নয় ঘরের মাঠে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধেও তিনি খেলতে পারবেন কিনা তা নিয়ে যথেষ্ট প্রশ্ন রয়েছে। অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে তৃতীয় টেস্টে অসাধারণ ব্যাটিং দক্ষতার ছাপ রেখেছেন হনুমা বিহারী। তার সঙ্গে যোগ্য সঙ্গত করেছেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

পঞ্চম দিনে ভারত সুবিধাজনক জায়গায় ছিল। কিন্তু ঋষভ পন্থ ও চেতেশ্বর পূজারা আউট হয়ে যান। চাপে পড়ে গিয়েছিল ভারত। ৫ উইকেট চলে গিয়েছে। তখনও দিনের বেশ কিছুটা সময় খেলা বাকি। অস্ট্রেলিয়া শিবির কার্যত চেপে ধরেছিল। একের পর এক আক্রমণাত্মক বোলিং আসতে থাকে অস্ট্রেলিয়া শিবির থেকে। কিন্তু ক্রিজে অত্যন্ত ঠান্ডা মাথায় ব্যাট করেছেন হনুমা বিহারী ও রবিচন্দ্রন অশ্বিন।

তারা রান করেননি সেইভাবে। বিশেষজ্ঞ মহল মনে করছে অস্ট্রেলিয়া ম্যাচ জিতে বেরিয়ে যেতে পারত। কিন্তু ডিফেন্সের দেওয়াল তুলে ফেলেছিলেন এই দুই ভারতীয়। তাই কার্যত তৃতীয় টেস্ট ড্র করতে বাধ্য হয় অস্ট্রেলিয়া। তারা কার্যত হতাশ। ভারতীয় শিবিরে এই টেস্ট জয়ের পরে যথেষ্ট চনমনে আবহাওয়া ছিল। কিন্তু হনুমা বিহারীর হ্যামস্ট্রিংয়ের চোট আরও গুরুতর হয়। চিকিৎসকরা মনে করেছেন, দীর্ঘ সময় পায়ের উপর ভর দিয়ে তিনি ব্যাট করেছেন। সেটাতেই চোট আরও বেড়েছে।

দৌড়োতে পারবেন না বলে সিঙ্গেল পর্যন্ত তিনি নেননি। চিকিৎসকরা জানিয়ে দিয়েছেন অবিলম্বে বিশ্রাম প্রয়োজন। তাই চতুর্থ টেস্টে তাকে দলে পাওয়া যাচ্ছে না। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধেও তিনি হয়তো মাঠের বাইরে থাকবেন। ভারতীয় শিবির কার্যত এই মুহূর্তে হাসপাতালে পরিণত হয়েছে। আরও একটি দুঃসংবাদ এসেছে। অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজা চার নম্বর টেস্টে অনিশ্চিত। তিনি দেশে ফিরে আসছেন। এর আগে উমেশ যাদব আহত হয়ে দলের বাইরে চলে গিয়েছেন। এছাড়াও একাধিক চোট-আঘাত রয়েছে ভারতীয় শিবিরে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।