১০০ শতাংশ টিকা দেওয়াই একমাত্র লক্ষ্য

ফোর্থ পিলার

আজ সোমবার করোনা টিকাকরণের দ্বিতীয় দিন। কিন্তু কো- উইনে বিভ্রাট দেখা গিয়েছে। পোর্টাল ঠিকভাবে কাজ করছে না। বসে যাচ্ছে নির্দিষ্ট সময় পরপর। এই নিয়ে দ্বন্দ্বে রয়েছে চিকিৎসক মহল। রবিবার সকালেও নিষ্ক্রিয় ছিল এই পোর্টাল। বিকেলে কাজ শুরু করে। কিন্তু তার গতি অত্যন্ত স্লথ।

করোনার টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে শনিবার ১০০ শতাংশ লক্ষ্যমাত্রা সম্পন্ন করা যায়নি। রাজ্য ও দেশে একই পরিস্থিতি। আজ সোমবার ফের চলছে টিকাকরণ। সকাল ৯ টা থেকে টিকা দেওয়া শুরু হয়ে গিয়েছে। কলকাতার ১৯ টি কেন্দ্রে টিকা দেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি গোটা রাজ্যে ২০৭ টি ভ্যাকসিন সেন্টার তৈরি করা হয়েছে। বিকেল পাঁচটা পর্যন্ত টিকাকরণ কর্মসূচি চলবে। স্বাস্থ্যকর্তারা মনে করছেন কেন্দ্রের সংখ্যা এখনও বাড়ানো ঠিক নয়। বরং লক্ষ্যমাত্রা ১০০ শতাংশতে নিয়ে যেতে হবে।

শনিবার দেখা গিয়েছিল অনেক জায়গাতেই টিকাকরণ খুব একটা ভালো অবস্থানে নেই। আবার অনেক জেলাই টিকা দেওয়ার ক্ষেত্রে অনেকটাই ভালো ফল দেখা গিয়েছে। ১০০ শতাংশ টিকাকরণ দেখা গিয়েছে পূর্ব বর্ধমান, ঝাড়গ্রাম, কালিম্পংয়ে। দার্জিলিঙে প্রায় ১০০ শতাংশ টিকাকরণ হয়েছিল শনিবার। কলকাতা ও পূর্ব মেদিনীপুর জেলাতে ৯০ শতাংশের বেশি টিকাকরণ হয়েছে। মুর্শিদাবাদ, দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৯২ শতাংশ। নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে হবে। এ কথাই মনে করছে রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের আধিকারিকরা।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।