১৩৫০ জন চালক, গার্ড করোনা আক্রান্ত, লোকাল ট্রেন বাতিলের হিরিক

ফোর্থ পিলার

রাজ্যের করোনা ভাইরাস পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার নিয়েছে। দৈনিক ১৭ হাজার আক্রান্তের খোঁজ মিলছে। কলকাতায় সংক্রমণ সর্বাধিক। লোকাল ট্রেন পরিষেবার উপরেও করোনা সংক্রমণের প্রভাব পড়েছে। শিয়ালদহ ও হাওড়া ডিভিশনে ট্রেন চলাচল ফের অনিয়মিত হয়ে উঠেছে। বহু ট্রেন বাতিল হচ্ছে। চালক ও গার্ডরা করোনা আক্রান্ত। এছাড়াও রেল চলাচলের সঙ্গে যুক্ত থাকা ব্যক্তিরা আক্রান্ত হচ্ছেন করোনা ভাইরাসে। তারাও চিকিৎসাধীন।

এই অবস্থায় কিছুতেই পরিষেবা ঠিকভাবে চালানো সম্ভব হচ্ছে না। শুক্রবার পর্যন্ত পাওয়া খবরে পরিস্থিতি অত্যন্ত ভয়াবহ আকার নিয়েছে। শিয়ালদহ ও হাওড়া ডিভিশনে চালক ও গার্ড মিলিয়ে ১৩৫০ জন করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। শিয়ালদহতে ৭৫০ জন করোনা আক্রান্ত হাওড়ায়। চালক ও গার্ড মিলিয়ে ৫০০ জন আক্রান্ত হয়েছেন। দক্ষিণ শাখাতেও আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। এছাড়াও গ্যাংম্যান থেকে সিগন্যালের দায়িত্বে থাকা রেলকর্মীরা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। চিকিৎসাধীন বহু রেলকর্মী।

এর ফলে ট্রেন পরিষেবা সচল রাখা কার্যত অসম্ভব হয়ে উঠেছে। লোকাল ট্রেন গত দুই সপ্তাহ ধরেই বাতিল হতে শুরু করে। গত তিনদিন ধরে লোকাল ট্রেন বাতিল হওয়ার সংখ্যা আরও বেড়েছে। পরিষেবা কি করে সচল রাখা যাবে? তাই নিয়ে প্রশ্ন উঠছে। এদিকে ট্রেনের সংখ্যা কমতে থাকায় যাত্রীদের চাপ বাড়ছে। দক্ষিণ শাখায় বাদুড়ঝোলা হয়ে যাতায়াত করছেন সাধারণ মানুষ। গতকাল এক যুবক ট্রেন থেকে পড়ে মারাও যান। সেজন্য রেল অবরোধও হয়। মেন লাইন ও বনগাঁ শাখাতেও কিছু কিছু ট্রেনে যথেষ্ট ভিড় দেখতে পাওয়া যাচ্ছে।

ট্রেনের মধ্যে সামাজিক দূরত্ববিধি মানার বালাই নেই। শিয়ালদহ, হাওড়ায় যাত্রীদের মধ্যে যথেষ্ট ধাক্কাধাক্কি হচ্ছে স্টেশন চত্বরে। ফলে করোনার আদর্শ জায়গা হয়ে উঠতে পারে এই দুই স্টেশন। একথাও বলা হচ্ছে। রেল দফতর এখনও পরিষেবা বন্ধের বিষয়ে কিছু জানায়নি। এবার ট্রেন পরিষেবা সচল থাকবে। একথা জানানো হয়েছে আগে। তবে পরিস্থিতি তখন এত ভয়াবহ ছিল না। এই অবস্থানে পূর্ব রেলের ডিআরএম জানিয়েছেন, লোকাল ট্রেন বাতিল করা হচ্ছে প্রতিদিন। পরিষেবা যতটা সম্ভব সচল রাখার চেষ্টা চলছে। কিন্তু পরিস্থিতি আয়ত্তের বাইরে। প্যাসেঞ্জার ট্রেন কিছু সংখ্যায় বাতিল করে দেওয়া হয়েছে। ওই সব লাইনে কোনওভাবেই যাত্রীসংখ্যা হচ্ছিল না। তাই ক্ষতি না করে ওইসব প্যাসেঞ্জার ট্রেন বাতিল করা হয়েছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।