১ নভেম্বরের আগেই করোনার টিকা আনবে আমেরিকা, বার্তা ট্রাম্পের

ফোর্থ পিলার

১ নভেম্বরের আগেই করোনার ভ্যাকসিন নিয়ে আসছে আমেরিকা মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সে কথাই জানিয়েছেন এই বিষয়ে রাজ্যের কর্তাদের সঙ্গে কথা বলা হবে আগামী দিনে পরিস্থিতি যাতে ঠিক থাকে সেজন্য বার্তা দেওয়া হচ্ছে কাদের প্রথম টিকা দেওয়া হবে সেই বিষয়েও খতিয়ে দেখা হবে আমেরিকার ভোটের আগেই প্রেসিডেন্ট চাইছে টিকা চলে আসুক দেশে

আমেরিকায় এখন টিকার দৌড়ে এগিয়ে রয়েছে দুটি ফার্মা কোম্পানি। জায়ান্ট মোডার্না বায়োটেক ও ফাইজার। মোডার্নার তৃতীয় স্তরের ভ্যাকসিন ট্রায়াল চলছে বলে খবর। দেশের ৩০ হাজার মানুষকে পরীক্ষামূলকভাবে টিকা দেওয়া হচ্ছে। মোডার্নার এমআরএনএ ভ্যাকসিন তথা এমআরএনএ-১২৭৩ ভ্যাকসিন ক্যানডিডেটর গবেষণা আরও অনেকটাই এগিয়েছে। ট্রায়ালের দায়িত্বে রয়েছে হোয়াইট হাউসের স্বাস্থ্য উপদেষ্টা অ্যান্থনি ফৌজির ন্যাশনাল ইনস্টিটিউট অব হেলথ। তবে নভেম্বরের আগেই মোডার্না সাধারণ মানুষের জন্য ভ্যাকসিন আনতে পারবে? এখনও রয়েছে চূড়ান্ত অনিশ্চয়তা।

জার্মান সংস্থা বায়োএনটেকের সঙ্গে যৌথ উদ্যোগে কাজ শুরু করেছে মার্কিন ফার্মাসিউটিক্যাল কোম্পানি ফাইজার। জার্মানি, অস্ট্রেলিয়া, ব্রাজিল সহ একাধিক দেশে টিকার ট্রায়াল চলছে। সেই ট্রায়াল কবে শেষ হবে, তা স্পষ্ট নয়। তাহলে কি চূড়ান্ত পর্বের ট্রায়ালের আগেই টিকা আনবে আমেরিকা? প্রশ্ন উঠেছে বিভিন্ন মহলে। দুটি ডোজে এই টিকা দেওয়া হবে। প্রথম ডোজ নেওয়ার পর কয়েক সপ্তাহ অপেক্ষা। তারপর দ্বিতীয় ডোজ দেওয়া হবে। এই ডোজে এন্টিবডি তৈরি হবে শরীরে।

কিন্তু এত তাড়াহুড়ো করছে কেন এমেরিকা আসলে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এর জনপ্রিয়তা কমতে শুরু করেছে করোনাভাইরাস ঠেকাতে মার্কিন প্রশাসন প্রশাসন সম্পূর্ণ ব্যর্থ এই কথা বিরোধীরা প্রচার করে যাচ্ছে এছাড়াও বর্ণবিদ্বেষ ঘটনায় উত্তাল হয়েছিলে আমেরিকা দেখা গিয়েছে গত তিন মাসে মার্কিন প্রেসিডেন্ট এর জনপ্রিয়তা কমেছে অনেকটাই এই অবস্থাতে শুধু চীনের উপর বিদ্বেষ মূলক বক্তব্য রেখে খুব একটা জনপ্রিয় হওয়া যাচ্ছে না

ভোটে জিততে হলে বড় চমক প্রয়োজন। নভেম্বর মাসেই আমেরিকায় নির্বাচন। তাই ১ নভেম্বরের আগেই টিকা নিয়ে আসতে চাইছে ডোনাল্ড ট্রাম্প। এর মাধ্যমে গোটা পৃথিবী তথা দেশের নাগরিকদের কাছে বার্তা দেওয়া যাবে। ভোটব্যাঙ্কে তার যথেষ্ট প্রভাব পড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। তাই নয় আমেরিকায় টিকা নেওয়ার ক্ষেত্রে কোনও বাধ্যবাধকতা নেই। কেউ চাইলে টিকা নাও নিতে পারেন। তবে কোন বয়সের ক্ষেত্রে টিকা নেওয়া হবে? কারা অগ্রাধিকার পাবে, সে সম্পর্কে জানানো হবে। পাশাপাশি বাচ্চাদের ডোজ কমিয়ে টিকাকরণ হবে বলে জানানো হচ্ছে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।