২৪ ঘণ্টায় দেশে আক্রান্ত ৬১ হাজার, সুস্থ ৫৬ হাজার

ফোর্থ পিলার

ভারতে করোনা আক্রান্ত মোট সংখ্যা ২৩ লক্ষ পেরিয়ে গেল। গত ২৪ ঘন্টায় দেশে প্রায় ৬১ হাজার মানুষ করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছেন। তবে সুস্থ হয়েছেন অনেক বেশি মানুষ। এই মুহূর্তে দেশে সুস্থতার হার ৭০ শতাংশ পেরিয়েছে। আরও বেশি টেস্টের মাধ্যমে করোনা ভাইরাস নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করছে কেন্দ্রীয় সরকার।

দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছেন ৬০,৯৬৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ৮৩৪ জনের। দেশে মোট করোনা ভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা ২৩,২৯,৬৩৮। গত ২৪ ঘন্টায় দেশে সুস্থ হয়েছেন ৫৬,১১০ জন। এই মুহূর্তে অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা প্রায় ৬ লক্ষ ৮৪ হাজার। ১৬ লক্ষ ৪০ হাজার আক্রান্ত সুস্থ হয়ে ফিরেছেন। দেশে মৃত্যুর হার কমেছে অনেকটাই। ১.৯৯ শতাংশ এই মুহূর্তে মৃত্যুর হার। ৭০.৩৮ শতাংশ মানুষ সুস্থ হয়েছেন।

উত্তরপ্রদেশ ,তামিলনাড়ু,পঞ্জাব ,কর্ণাটক , অন্ধপ্রদেশ , গুজরাত, তেলেঙ্গানা, বিহার, মহারাষ্ট্র, পশ্চিমবঙ্গ দেশের এই ১০ টি রাজ্যেই সংক্রমণ এবং মৃত্যু দুয়ের হারই বেশি। এই ১০ টি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠক করেন মোদি। টেস্টের সংখ্যা বাড়িয়েই করোনাকে হারানো সম্ভব। আরও একবার এই বার্তা দিলেন প্রধানমন্ত্রী।

ভারতের একাধিক রাজ্যে গোষ্ঠী সংক্রমণ দেখা দিয়েছে অনেক আগেই। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক এই বিষয়ে পর্যালোচনা করেছে। আগস্ট মাসে সংক্রমণ সর্বোচ্চ স্তরে পৌঁছবে। এই কথা জানাচ্ছেন চিকিৎসক ও বিজ্ঞানীরা। দেশের দশটি রাজ্যে সংক্রমণের তীব্রতা সব থেকে বেশি। মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, কর্ণাটক, পশ্চিমবঙ্গ তালিকায় অন্যতম স্থানে রয়েছে। এই সংক্রমণের তীব্রতা কমালে যথেষ্ট ভালো ফল পাওয়া যাবে ভারতবর্ষে।

উত্তর ও উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতে সংক্রমণে তীব্রতা অত্যন্ত কম। মেঘালয়, মণিপুর, ত্রিপুরা সহ বেশ কয়েকটি রাজ্যে সংক্রমণ অত্যন্ত গত একমাসে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।