২৫ বছর পর বক্সার জঙ্গলে দেখা গেল কালো বাঘ

ফোর্থ পিলার

বক্সার জঙ্গলে দেখা মিলল ব্ল্যাক প্যান্থারের। গত ২৫ বছরে কালো বাঘের উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়নি। কিন্তু এবার বন দফতরের কর্তারা তার সন্ধান পেয়েছে। একটি নয় একাধিক ব্ল্যাক প্যান্থার রয়েছে বক্সার জঙ্গলে। একটি মাস চারেকের শাবকের দেখাও পাওয়া গিয়েছে। বন দফতরের ট্র্যাপ ক্যামেরায় ছবি ধরা পড়েছে।

বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের ক্ষেত্রে অধিকর্তা শুভঙ্কর সেনগুপ্ত ছবি প্রকাশ করেছেন। ইংরেজি নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ছবি প্রকাশ করে। পরিবেশবিদ ও বন্য প্রাণিজগতের কাছে এই ছবি অত্যন্ত মূল্যবান। কালো বাঘের অবস্থান সংখ্যা অত্যন্ত কম। বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের অস্তিত্ব রয়েছে কিনা তাই নিয়ে বহু বছর ধরে প্রশ্ন চলছিল। শেষ পর্যন্ত তাদের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে। বন দফতর ট্রাপ ক্যামেরা লাগিয়ে রেখেছিল জঙ্গলে।

নভেম্বর মাস থেকে সেই ক্যামেরায় ব্ল্যাক প্যান্থারের চলাফেরা লক্ষ্য করা গিয়েছে। বক্সার জঙ্গলে কতগুলি ব্ল্যাক প্যান্থার রয়েছে? সে সম্পর্কে কোনও তথ্য জানানো হচ্ছে না। চোরাশিকারিরা এই বনে হানা দিতে পারে সেই সংখ্যা শুনলে। সে কারণেই এই সংখ্যা প্রকাশ করা হচ্ছে না। ব্ল্যাক প্যান্থার কোন জায়গায় অন্যান্য বাঘের থেকে আলাদা?

সাধারণ বাঘের গায়ে ডোরাকাটা দাগ থাকে। এই ক্ষেত্রে জিনগত পরিবর্তন দেখা যায়। তাই বাঘের চেহারা মিশমিশে কালো রঙের হয়ে যায়। বংশ বৃদ্ধির ক্ষেত্রে এই কালো রং দেখতে পাওয়া যায়। বক্সার জীব বৈচিত্র অত্যন্ত ভালো অবস্থানে রয়েছে। একথা পরিষ্কার। বন দফতরের কর্তারা অনেকটাই আশাপ্রদ। ভালুক, হরিণ একাধিক বন্য পশু ছবি ধরা পড়েছে ক্যামেরায়।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।