৩০ হাজারে নামলো দৈনিক সংক্রমণ, মৃত্যুও সর্বনিম্ন ১২৫ দিনে

ফোর্থ পিলার

দেশের করোনা সংক্রমণে দৈনিক আক্রান্ত ও মৃত্যুর সংখ্যা অনেকটা নেমে এল। ১২৫ দিনের পর দৈনিক করোনা সংক্রমণ নেমে এল ৩০ হাজারের ঘরে। দৈনিক মৃত্যু ৪০০ এর নিচে নামল। এই সংখ্যা যথেষ্ট স্বস্তি দিচ্ছে চিকিৎসকদের। পাশাপাশি সুস্থ হওয়ার সংখ্যাও বাড়ল গত ২৪ ঘন্টায়।

করোনা সংক্রমণের দ্বিতীয় ঢেউ এখনও ভারতে দেখতে পাওয়া যাচ্ছে প্রতিদিন। দৈনিক আক্রান্ত ও সুস্থ হওয়ার সংখ্যা ওঠানামা করছে। এই পরিস্থিতিতে মঙ্গলবার সকালে পাওয়া তথ্য কিছুটা আশার সঞ্চার করেছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত তথ্য দিয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ৩০ হাজার করোনা আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গেল। ১২৫ দিনের মধ্যে এই সংক্রমণ সর্বনিম্ন। গতকাল ৪৯৯ জন মারা গিয়েছিলেন করোনায়। সেই সংখ্যা আরও কমেছে। গত ২৪ ঘন্টায় ভারতে ৩৭৪ জন মারা গিয়েছেন করোনা ভাইরাসে।

করোনায় মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৪ লক্ষ সাড়ে ১৪ হাজার প্রায়। অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা আরও কমেছে গত ২৪ ঘন্টায়। দেশে এই মুহূর্তে চার লক্ষ ছয় হাজারের সামান্য বেশি মানুষ করোনায় চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সেপ্টেম্বর মাসে ভারতে করোনার তৃতীয় ঢেউ আসতে পারে। এই আশঙ্কা করা হচ্ছে। করোনার হটস্পটগুলিকে ফের নজর রাখা হচ্ছে। তার মধ্যেই চলছে নতুন করে সংক্রমণের অবস্থা নির্ণয়। দেশে তিন কোটি ১১ লক্ষ ৭৪ হাজারের বেশি মানুষ করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন তিন কোটি তিন লক্ষ ৫৪ হাজার প্রায়।

দেশের টিকাকরণ কর্মসূচি অত্যন্ত ধীরগতিতে হচ্ছে। তাই নিয়ে যথেষ্ট পরিমাণে অসন্তোষ রয়েছে চিকিৎসক ও বিজ্ঞানীদের মধ্যে। ৪১ কোটি ১৮ লক্ষ ৪৬ হাজারের বেশি টিকা দেওয়া হয়েছে এখনও অবধি। তবে দুটি ডোডজ পেয়েছেন সামান্য সংখ্যক মানুষই।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।