৩ লক্ষ ৫৩ হাজার সুস্থ একদিনে, মৃত্যু চার হাজারের কম

ফোর্থ পিলার

পরপর দু’দিন দেশে করোনা আক্রান্তের তুলনায় সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বাড়ল। গতকাল এই সংখ্যা তুলনামূলকভাবে কম ছিল। আজ শনিবার প্রায় ২৬ হাজার বেড়েছে এই সংখ্যা। দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যা চার হাজারের নিচে নেমে এল। পরিস্থিতি আশানুরূপ জায়গায় মোটেও নেই। তবুও কিছুটা আশার আলো দেখছেন চিকিৎসক ও বিজ্ঞানীরা। ভ্যাকসিন আকাল চলছে ভারতবর্ষতে। তার মধ্যে আজ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে ভার্চুয়াল বৈঠকে বসবেন। করোনা ভাইরাসের তৃতীয় ঢেউ কি করে ঠেকানো যায়? সেই সম্পর্কে আগাম রূপরেখা তৈরি হবে বলে খবর পাওয়া যাচ্ছে।

ভারতবর্ষে দ্বিতীয় ঢেউ এই মুহূর্তে সম্পূর্ণ বেসামাল অবস্থা তৈরি করে দিয়েছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক করোনা ভাইরাস সম্পর্কিত তথ্য দিয়েছে। গত ২৪ ঘন্টায় ভারতে ৩ লক্ষ ২৬ হাজারের বেশি মানুষ করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হয়েছেন। তিনদিন আগেও এই সংখ্যা চার লক্ষের বেশি ছিল। সংক্রমণ প্রায় ৭৫ হাজার কমে এসেছে। এই সংখ্যা কিছুটা আশা যোগাচ্ছে। অন্যদিকে দৈনিক সুস্থ হওয়ার সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ লক্ষ ৫৩ হাজারের বেশি। এই সংখ্যা অত্যন্ত লক্ষণীয়। গত দেড়মাসে প্রথম এত সংখ্যক মানুষ আক্রান্তের তুলনায় সুস্থ হলেন।

চলতি মাসেই সুস্থ হওয়ার সংখ্যা কেবল একদিন ৩ লক্ষ ৯০ হাজারের কাছাকাছি পৌঁছেছিল। তবে সেই সময়ে আক্রান্তের সংখ্যা ছিল অনেকটাই বেশি। গত ২৪ ঘন্টায় ভারতে মারা গিয়েছেন ৩৮৯০ জন। গত ৬ দিন পরে মৃত্যুর সংখ্যা চার হাজারের নিচে নামল। দেশে মোট মৃত্যুর সংখ্যা ২ লক্ষ ৬৬ হাজারের বেশি। অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা কমেছে সামান্য। এর আগে ৩৭ লক্ষ পেরিয়ে গিয়েছিল অ্যাক্টিভ রোগী। শনিবার পাওয়া তথ্যে ভারতে করোনা ভাইরাসে অ্যাক্টিভ রোগীর সংখ্যা ৩৬ লক্ষ ৭৪ হাজার প্রায়।

দেশে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ২ কোটি ৪৩ লাখ ৭৩ হাজার প্রায়। অন্যদিকে সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৪ লক্ষ ৩৩ হাজারের কাছাকাছি। আগামী ১৫ দিন দেশের রাজ্যগুলিতে ২ কোটি ভ্যাকসিন পৌঁছে দেওয়া হবে। এই কথা জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক। পশ্চিমবঙ্গতে আজ সকালে ৭০ হাজার ভ্যাকসিন এসে পৌঁছেছে। গোটা দেশে মোট ভ্যাকসিন দেওয়া হয়েছে ১৮ কোটি ৪ লক্ষ ৫৭ হাজার ৫৭৯ জনকে। করোনার দ্বিতীয় ঢেউ ভারতবর্ষকে কার্যত বেসামাল করে দিয়েছে। পরিস্থিতি কবে উন্নত হবে? তার আশু চিত্র দেখা যাচ্ছে না এই মুহূর্তে।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।