৫৬ টি হাতির করোনা পরীক্ষা হল দেশে

ফোর্থ পিলার

করোনার আতঙ্ক ছড়িয়েছে পশুদের মধ্যেও৷ মানুষের শরীর থেকে পশুদের মধ্যে সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়তে পারে৷ সোমবার চেন্নাইয়ের চিড়িয়াখানায় এক সিংহী করোনার জন্য মারা যায়। আরও নটি সিংহের করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। এরপর মঙ্গলবার কোয়েম্বাটুর ও নীলগিরি – এই দুটো শিবির মিলিয়ে ৫৬ টি হাতির করোনা টেস্ট করা হয়। রাজ্যের বনমন্ত্রী রামচন্দ্রন কোঝিকমুডি শিবিরে নিজে দাঁড়িয়ে থেকে হাতিদের সোয়াব টেস্ট করে ২৮ টি হাতির করোনা পরীক্ষা করেন।

বন দফতর থেকে জানানো হয়, কোঝিকমুডি শিবিরে ১৮টি মদ্দা হাতি ও ১০ টি মাদি হাতির করোনা পরীক্ষা হয়েছে। তার মধ্যে ১০টি হাতি ছিল পোষ্য। পাঁচটি হাতি জঙ্গল সাফারিতে কাজ করত। চারটি হাতি ছিল বয়স্ক। ওই ক্যাম্পে আছে ৬০ জন মাহুত, তাঁদের সহকর্মী ও পরিবারের সবাইকেই টিকা দেওয়া হয়। হাতির জন্য যাদের ক্ষতি হয়েছে, তাদেরকে মন্ত্রী সাড়ে তিন লাখ টাকা ক্ষতপূরণ হিসাবে দেন। চোরাশিকারী আটক করতে বন দফতরের টিমকে ইউনিফর্ম দেন। তাছাড়াও বনরক্ষীদের পিপিই কিট দেন।

আপাতত দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ২ কোটি ৯০ লক্ষ ৮৯ হাজার ৬৯ জন। মোট মৃত্যুর সংখ্যা ৩ লক্ষ ৫৩ হাজার ৫২৮ জন। বুধবার কিছুটা করোনা পজিটিভিটির হারও কমেছে। রাজ্য ভিত্তিক করোনা সংক্রান্তর দিকে চোখ রাখলে দেখা যাবে শীর্ষে আছে মহারাষ্ট্র। কারণ এই রাজ্যই করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে সর্বাধিক ধ্বংসের আকার নিয়েছে। মহারাষ্ট্রের পরেই যথাক্রমে রয়েছে কর্ণাটক, কেরালা, তামিলনাড়ু, অন্ধপ্রদেশ।

মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।